×
জীবনযাপনসৌন্দর্য

Skin Care Tips: পেয়ারা, ডালিম পাতা মুখে উজ্জ্বলতা আনবে, এইভাবে এগুলো দিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করুন

Advertisement

সকল মানুষের রূপের চাহিদা থাকে। মুখের উজ্জ্বলতা আনতে আপনিও নিশ্চয়ই অনেক ঘরোয়া উপায় ট্রাই করেছেন। কিন্তু ত্বকের যত্নে কিছু বাছাই করা পাতার ফেসপ্যাকের কথা শুনেছেন কি? হ্যাঁ, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য সমৃদ্ধ কিছু পাতার ব্যবহার আপনার ত্বকের জন্য খুবই উপকারী প্রমাণিত হতে পারে। পেয়ারা, ডালিম এবং কারি পাতার ফেসপ্যাক ব্যবহার ব্রণ, সূক্ষ্ম রেখার মতো সমস্যা থেকে মুক্তির পাশাপাশি মুখের উজ্জ্বলতা বজায় রাখতে খুব সহায়ক হতে পারে।

Advertisement

সাধারণত মুখ উজ্জ্বল ও সুন্দর করার জন্য মানুষ নানাভাবে চেষ্টা করে থাকে। মুখের সৌন্দর্য বাড়াতে কেউ কেউ দামি বিউটি প্রোডাক্টের সাহায্য নেন। তাই একই সঙ্গে মুখের সব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে অনেকেই ঘরোয়া প্রতিকারকে প্রাধান্য দেন। আপনি যদি ঘরোয়া প্রতিকারের কথা বলেন, তাহলে আপনি অবশ্যই প্রায়শই এই তালিকায় ফল, সবজি এবং প্রাকৃতিক পণ্য ব্যবহার করে দেখেছেন। কিন্তু জানেন কি ত্বকের যত্নে কার্যকরী ঘরোয়া উপায়ে গাছের কিছু পাতার নামও রয়েছে।

হ্যাঁ, ঔষধি উপাদানে ভরপুর কিছু গাছের পাতাকে আপনার ত্বকের যত্নের অংশ করে নিতে পারেন। এছাড়াও, মুখে এই পাতাগুলি থেকে তৈরি একটি ফেসপ্যাক চেষ্টা করে, আপনি বলি এবং সূক্ষ্ম রেখার মতো বার্ধক্যের লক্ষণগুলিকে পরাস্ত করতে পারেন। একই সময়ে, এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বজায় রাখার জন্য একটি খুব কার্যকর রেসিপিও প্রমাণিত হতে পারে। তঃ চলুন জেনে নিই এই বিস্ময়কর পাতা ও এর উপকারিতা সম্পর্কে।

Advertisement

পেয়ারা পাতায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-এজিং উপাদান। যা মুখের বলিরেখা ও সূক্ষ্ম রেখা দূর করতে সহায়ক। এর জন্য ২-৩টি পেয়ারা পাতা পিষে পেস্ট তৈরি করুন। এবার এতে কিছু দই মিশিয়ে মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফলের জন্য সপ্তাহে দুবার এই ফেসপ্যাকটি লাগান।

ডালিম পাতা দিয়ে ম্যাসাজ করুন
ডালিমের পাতাকে ফোলেট, পটাসিয়াম এবং ভিটামিন সি-এর ভালো উৎস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এটি ট্যানিং এবং একজিমা পরিত্রাণ পেতে একটি খুব কার্যকর রেসিপি হতে পারে। এর জন্য ২৫০ মিলি তিলের তেলে ডালিম পাতা সিদ্ধ করুন। প্রায় আধা ঘণ্টা ফুটানোর পর ঠাণ্ডা করে বোতলে ভরে নিন। এবার এই মিশ্রণটি দিয়ে প্রতিদিন মুখে ম্যাসাজ করুন এবং ১৫ মিনিট পর একটি পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন।

কারি পাতার ফেসপ্যাক
অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান যুক্ত কারি পাতা ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এর জন্য ১ কাপ নারকেল তেলে ৩৫-৪০টি কারি পাতা দিয়ে আধা ঘণ্টা ফুটিয়ে নিন। এবার ঠাণ্ডা করে ছেঁকে নিয়ে শিশিতে ভরে রাখুন। এই মিশ্রণটি নিয়মিত মুখে লাগান। কিছুক্ষণ হালকা হাতে ম্যাসাজ করার পর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

Related Articles

Back to top button