নিউজপলিটিক্সরাজ্য

দেড়মাসেই মোহভঙ্গ, ভুল বুঝতে পেরে বিজেপি ছেড়ে ফের শাসক শিবিরে ফিরলেন পূর্ব মেদিনীপুরের নেতা

রবিবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের(Partha Chaterjee) হাত ধরে আবারও শাসক শিবিরে ফিরলেন সিরাজ খান(Siraj Khan), গেরুয়া শিবিরে থাকতে পারলেন না ১.৫ মাসের বেশি

×
Advertisement

প্রায় দেড় মাসেই মোহ ভাগ। বিজেপি থেকে তৃণমূলে ফিরতে দেখা পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা পরিষদের প্রাক্তন খাদ্য কর্মাধ্যক্ষকে। রবিবার শাসক শিবিরের ভবনে এসে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের(Partha Chaterjee) হাত থেকে দলের পতাকা তুলে নেন সিরাজ খান। যোগদান অনুষ্ঠানে ছিলেন জেলার শাসক শিবিরের সভাপতি সৌমেন মহাপাত্রও(Soumen Mahapatra)। সিরাজের(Siraj Khan) বক্তব্য,নিজের ভুল বুঝতে পেরে তিনি তৃণমূলে ফিরলেন।

Advertisement

আগের ২৪ এ নভেম্বর পূর্ব মেদিনীপ্রের মেচেদায় গেরুয়া শিবিরের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের (Kailash Vijayvargiya) হাত ধরে গেরুয়া শিবিরে পা রেখেছিলেন সিরাজ খান। তার আগের দিন জেলা পরিষদের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন তিনি। তখনই জল্পনা উসকে গিয়েছিল। এইবার বোধ হয় শিবির বদলাতে চলেছেন পুর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল নেতা। সেই জল্পনাকে সত্যি করে বিজেপিতে যোগ দিলেন সিরাজ। আর তারপরই তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সরকারের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দাগেন। অভিযোগ তোলেন, দ্বিতীয় তৃণমূল সরকারে কোনও কাজই হয়নি। প্রতিশ্রুতি অনুসারে সংখ্যালঘুর উন্নয়নে কাজ করেনি সরকার। এই দলের সাথে কাজ করতে তার সমস্যা হচ্ছে বলে দল বদল করছেন, এমনটাই শোনা গিয়েছিল তার মুখে।

কিন্তু দেড় মাস গেরুয়া শিবিরে থাকতে না থাকতেই মধ্যেইমোহভঙ্গ হল সিরাজ খানের। রবিবার তথা আজ তৃণমূলে ফিরে সিরাজ বলেন,”বিজেপি বড়লোকেদের দল। তৃণমূল গরিব মানুষের পাশে থাকার দল। এখানে মানুষের সম্মান আছে। তাই আবার ফিরে এলাম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় কাজ করতে চাই।” সিরাজকে দলে যোগদান করিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন,”কৈলাসজি ওকে ধটা করে তাদের দলে নিয়ে গিয়েছিলেন, আমরাও ঘটা করে তাই ফিরিয়ে আনলাম।”

Advertisement

বিধানসভা ভোট আসন্ন। তার আগে চলছে দল বদলের খেলা। প্রতিবারই তাই দেখা যায়। কিন্তু এইবারের সমীকরণ কিছুটা আলাদা । অনেকটাই প্রভাব বৃদ্ধি পেয়েছে বিজেপির। ফলে সেই দলে যোগদানের প্রবণতাও অনেকটাই বেড়েছে। কিন্তু উলটপুরাণও যে হচ্ছে, এদিন সিরাজের যোগদানই তার প্রমাণ।

Related Articles

Back to top button