বলিউডবিনোদন

Sidharth Shukla death: ময়নাতদন্তের রিপোর্টে কোনও ‘আঘাতের চিহ্ন নেই’ , মৃত্যুর কারণ খুঁজতে ‘অন্য রাস্তায়’ হাঁটছে মুম্বাই পুলিশ



বৃহস্পতিবার অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লার হঠাৎ করে সবাইকে ফাঁকি দিয়ে এইভাবে চলে যাওয়ার খবর হতবাক গোটা বলিউড ইন্ড্রাস্টি। এইদিন সকালে হদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘুমের মধ্যে না ফেরার দেশে চলে যান ছোটপর্দার জনপ্রিয় মুখ সিদ্ধার্থ শুক্লা।হাসপাতাল সূত্রে খবর,বুধবার মায়ের সঙ্গে নিজের আবাসনেই ঘুরছিলেন সিদ্ধার্থ। আচমকাই হাঁটতে হাঁটতে অসুস্থ বোধ করেন অভিনেতা।

ফ্ল্যাটে ফিরে ঘুমের আগে একটি ওষুধ খেয়েছিলেন তিনি। ঘুমের মধ্যেই শান্ত মনে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন সিদ্ধার্থ। সেদিন সকালে ১০ঃ৩০ টার সময়ে কুপার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই রাস্তাতেই প্রাণ হারান অভিনেতা। হাসপাতালে ডাক্তার অভিনেতালে ইসিজি করে বলেন তিনি মৃত। সিদ্ধার্থের চলে যাওয়ার কথা এখনো কেউ বিশ্বাস করতে পারছেননা। হতবাক সকলে। অভিনেতার অনুরাগী, গুণমুগ্ধ, সতীর্থ আর বন্ধুরা কেউই মানতে পারছেন না যে সিদ্ধার্থ আর নেই।

অনেকে মনে করছেন ৪০ বছরের অভিনেতার এই হার্ট অ্যাটার্ক হওয়া স্বাভাবিক নয়। এর জন্যই গতকালই ময়না তদন্ত শেষ হয়েছে প্রয়াত অভিনেতার।সিদ্ধার্থ শুক্লর মৃত্যুর ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে হিস্টোপ্যাথোলজি টেস্ট করার পর মৃত্যুর কারণের বিস্তারিত রিপোর্ট পাওয়া যাবে বলে জানা গিয়েছে। 

ইতিমধ্যে অভিনেতার ভিসেরা নমুনা ইতিমধ্যেই রাসায়নিক বিশ্লেষণের জন্য পাঠানো হয়েছে যাতে তার মৃত্যুর নেপথ্যে কী কারণ রয়েছে সে বিষয়ে একটি পরিষ্কার চিত্র পাওয়া যায়। সূত্রের খবর,হিস্টোপ্যাথলজি পরীক্ষা করলে তখন মৃত ব্যক্তির মৃত্যুর কারণ তখনই স্পষ্ট উত্তর পাওয়া যেতে পারে। প্রাথমিক ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর কুপার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মুম্বই পুলিশকে সিদ্ধার্থের মৃতদেহ হস্তান্তর করেছেন। সেই রিপোর্টে বলা হয়েছে শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। সূত্রের খবর, শুক্রবার সাড়ে ১২টা নাগাদ সিদ্ধার্থের পরিবারের হাতে তাঁর দেহ তুলে দেওয়া হবে। এরপরেই অভিনেতার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে খবর।

Related Articles

Back to top button