টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

মেক-আপ রুমে তুমুল ঝামেলা, রাগের চোটে শ্রুতির চুল কেটে দিতে গেলেন সহ অভিনেত্রী, দেখুন ভিডিও

Advertisement
×

ইদানি অভিনেত্রী শ্রুতি দাস (Shruti Das) ইন্সটাগ্রামে মজার ভিডিও শেয়ার করেন। এবার তিনি তাঁর চুল কাটা নিয়ে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। মেকআপ রুমে তিনি তাঁর সহ-অভিনেত্রী শম্পা ব্যানার্জি (shampa Banerjee) -কে বলছেন, তাঁর চুল খুব বড় হয়ে গেছে, তাই তিনি ভাবছেন চুলটা কেটে ফেলবেন। শম্পাও তাঁকে চুল কাটতে বলেন। কিন্তু শ্রুতি বলেন, তাহলে তিনি বেণী বাঁধবেন কি করে! এই দোনোমোনো একসময় ঝগড়ার পর্যায়ে পৌঁছে গেলে শম্পা রেগে গিয়ে কাঁচি নিয়ে শ্রুতির পিছনে ছুটলেন। নেটদুনিয়ায় শ্রুতি ও শম্পার এই ভিডিওটি ভিডিওটি তুমুল ভাইরাল হয়েছে।

Advertisement
Advertisement

কাটোয়া থেকে কলকাতায় পড়াশোনা করতে এসেছিলেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস। কিন্তু পড়াশোনার পাশাপাশি মডেলিং করার স্বপ্ন দেখতেন শ্রুতি। জি বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘ত্রিনয়নী’ র মাধ্যমে শ্রুতির অভিনয়ের কেরিয়ার শুরু হয়। এই সিরিয়ালে অভিনয়ের মাধ্যমে যথেষ্ট জনপ্রিয়তা অর্জন করেন শ্রুতি। তবে গত বছরে করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের জেরে ‘ত্রিনয়নী’র টিআরপি নেমে যায়। ফলে চ্যানেল কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী সিরিয়ালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এই মুহূর্তে শ্রুতি ‘দেশের মাটি’ সিরিয়ালে গ্রামের শিক্ষিতা মেয়ে নোয়া-র ভূমিকায় অভিনয় করছেন । তাঁর বিপরীতে কিয়ানের ভূমিকায় অভিনয় করছেন দিব্যজ‍্যোতি দত্ত (Dibyojyoti Dutta)। চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে শুরু হয়েছে ‘দেশের মাটি’। একটি যৌথ পরিবার ভেঙে আলাদা হয়ে যাওয়ার পর পুজো উপলক্ষ্যে স্বরূপনগরের পৈতৃক ভিটেতে সদস্যদের একত্রিত হওয়ার কাহিনী দেখানো হচ্ছে ‘দেশের মাটি’-তে।

Advertisement

এই মুহূর্তে শ্রুতি ‘ত্রিনয়নী’র পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার(swarnendu samaddar)-এর সাথে সম্পর্কে রয়েছেন। ‘ত্রিনয়নী’র সেট থেকে বয়সে 14 বছরের বড় স্বর্ণেন্দুর সঙ্গে শ্রুতির আলাপ যা ক্রমশ প্রেমে পরিণত হয়েছে। শ্রুতি প্রথম প্রস্তাব দিয়েছিলেন স্বর্ণেন্দুকে। কিন্তু স্বর্ণেন্দু তাঁদের বয়সের ব্যবধানের কথা ভেবে পিছিয়ে গেলেও নাছোড়বান্দা শ্রুতি একসময় স্বর্ণেন্দুর মন জয় করে নেন। গত বছর পুজোর আগে শ্রুতি ও স্বর্ণেন্দু তাঁদের দুজনের পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে গিয়েছিলেন কোনো সমুদ্র সৈকতে। সেখান থেকে বহু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন তাঁরা। তবে দুর্গাপূজার সপ্তমীর দিন শ্রুতি চলে আসেন তাঁদের কাটোয়ার বাড়িতে। কিন্তু স্বর্ণেন্দু তাঁর সাথে কাটোয়া যেতে চাননি। তবে এই মুহূর্তে স্বর্ণেন্দু ও শ্রুতির বিয়ের ব্যাপারে দুই পরিবার চিন্তা-ভাবনা করছেন বলে জানা গেছে।

Advertisement
Advertisement

Advertisement

Related Articles

Back to top button