অফবিট

হার মানবে বলিউডের হিরোরা, স্কুল জীবনের ছবি শেয়ার করলেন রতন টাটা

Advertisement

স্কুল জীবনের একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন ভারতের বিজনেস টাইকুন (Business tycoon of india) রতন টাটা (Ratan Tata)। আর তাতেই আপ্লুত সকলে। চোখ ফেরানো যাচ্ছে না ইয়ং রতন টাটাকে দেখে। জামশেদজি টাটার পুত্র রতন টাটা দেশের সব চেয়ে ধনী ব্যাবসায়ীদের একজন হওয়া সত্ত্বেও ব্যাক্তিগত জীবনে খুবই লাজুক এবং হাসি খুশি। সম্প্রতি তিনি ৬৫ বছর আগে স্কুলজীবনের ছবি শেয়ার করেন ইন্সটাগ্রামের পাতায়। বেশ তাতেই ভাইরাল হয়ে যায় এই পোস্ট। এর আগেও মাটিতে বসে তোলা একটি ছবি রতন টাটা শেয়ার করেছিলেন। একজন এত বিরাট শিল্পপতি মাটিতে বসতে পারেন তাতেই অবাক হয়ে ছিলেন নেট জনতা। আবারও সোশ্যালে উঠেছে ঝড়।

টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান পদে থাকা ছাড়াও রতন টাটা আরও বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন ও আছেন। এদিন স্কুল জীবনের একটি ছবি শেয়ার করে রতন টাটা লিখেছেন, ”লো আর রুডির কথা মনে পড়ছিল। তাই স্কুল জীবনের একটি ছবি শেয়ার করছি। রিভার্ডেল কান্ট্রি স্কুলে পড়তাম আমি। ১৯৫৫ সালের ইয়ার বুক-এ এই ছবিটি ছিল।”

যুবক বয়সে তিনি যে চূড়ান্ত হ্যান্ডসাম ছিলেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

৮২ বছর বয়সী রতন টাটার ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার-এর সংখ্যা ৩০ লাখেরও বেশি। এর আগেও যতবার রতন টাটা নিজের পুরনো ছবি শেয়ার করেছিলেন ইন্টারনেটে ঝড় উঠেছিল।

বর্তমানে রতন টাটা ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বানিজ্য ও শিল্প বিষয়ক একজন প্রধান উপদেষ্টা, এবং ভারতের ‘ন্যাশনাল মেনুফ্যাকচারিং কম্পিটিটিভনেস কাউন্সিল’ এর সদস্য। এমনকি তিনি তিনি দুইবার ভারতের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান পদ্মভূষণ লাভ করেছেন।

রতন টাটা ছোট বেলা থেকেই বেশ মেধাবী ছিলেন। ১৯৭৫ সালে তিনি হার্ভাড ইউনিভার্সিটির বিজনেস স্কুল থেকে এ্যাডভান্সড ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে একটি কোর্স করেন। এরপর বিজনেসে মন প্রাণ নিয়োগ করেন তিনি।

বর্তমানে তিনি কতটা সফল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে এদিন তিনি যেই তাঁর পুরনো ছবি পোস্ট করেছেন তখনই কমেন্টে ভরে যায় সেই পোস্ট। কেউ কেউ লেখেন “I wonder how not a single girl dated any handsome like you , Sir”। আবার কেউ কেউ লিখেছেন “আপনাকে এখনকার বলিউড হিরোদের থেকেও ভালো দেখতে ছিল।”

Tags

Related Articles

Back to top button