টলিউডবিনোদন

পায়ে চোট পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি প্রিয়ঙ্কা, ছোট্ট সহজের দায়িত্ব নিলেন রাহুল

শুক্রবার রাতে শ্যুটিং চলাকালীন এক উন্মুক্ত মত্ত বাইকচালকের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন প্রিয়াঙ্কা। অভিনেত্রীর সঙ্গে ছিলেন অর্জুন চক্রবর্তীও। আহত দুই অভিনেতা অভিনেত্রীকে দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর অর্জুন ছাড়া পেয়ে গেলেও বাইপাসের ধারে সেই হাসপাতালে থেকে ভর্তি৷ থাকেন প্রিয়াঙ্কা। হাসপাতাল সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, বাইকের ধাক্কায় প্রিয়াঙ্কা৷ ডান পায়ে গুরুতর চোট পেয়েছেন। তাঁর পায়ের টিবিয়ায় চোট লেগেছে।

এর জন্য শনিবার দুপুর তিনটে নাগাদ অভিনেত্রী অস্ত্রোপচার করে পায়ে প্লেট বসানো হয়েছে। প্রিয়াঙ্কা হাসপাতালে ভর্তি এই কথা শুনেই চিন্তায় ঘুম উড়েছে অনুরাগীদের। শুধু অভিনেত্রীকে নিয়ে চিন্তা নেই চিন্তা আছে তাঁর ছেলেকে নিয়েও। নিজের মাকে ছাড়া কেমন আছে ছোট্ট সহজ। রাহুল আর প্রিয়াঙ্কা আলাদা হয়ে যাওয়ার পর থেকে মায়ের সাথেই থাকে ছোট্ট সহজ। বয়স মাত্র ৮ বছর। সেখানে শুক্রবার মাঝ রাত থেকে হাসপাতালে ভর্তি। অস্ত্রোপচারের পরেও হাসপাতালে থাকতে হবে আরও কিছুদিন। তাই সকলের প্রশ্ন কার কাছে আছে সহজ?

এল সংবাদমাধ্যমকে সহজের বাবা রাহুল জানালেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠে আমার ড্রাইভারের থেকে জানতে পারি প্রিয়াঙ্কার দুর্ঘটনার কথা। তারপর ওর সাথে ফোনে কথা হয়। ব্যথার ওষুধ খেয়েছে বলে হয়তো গলাটা ঠিক লাগল। অপারেশনের পর বিকেলে ওর সাথে দেখা করতে যাব। তখন ওর শরীর কেমন আছে আরও বিস্তারিত জানতে পারব।’

এরপরেই ছেলে সহজের প্রসঙ্গে রাহুল জানান, ‘সহজ বাড়িতেই আছে। ঠিক আছে। ওর সাথে আয়া-পরিচারিকা আছে। ওর যত্নে কোনও ত্রুটি থাকছে না।’ রাহুল আর প্রিয়াঙ্কা একে অপরের ভালোবাসার সম্পর্কে ইতি টানলেও সহজের জন্য এখনো তাঁদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আছে। তাঁদের মধ্যে যোগাযোগও আছে ছেলের ভালোমন্দের জন্য। একে অপরের বিপদ হলে দুজনেই দুজনের পাশে থাকেন। মা-বাবা হিসেবে সহজের সব দায়িত্ব একসাথেই পালন করার চেষ্টা করেন প্রিয়াঙ্কা আর রাহুল। আপাতত যে মত্ত বাইকচালকের জন্য এই দুর্ঘটনা ঘটেছে সেই ব্যক্তির খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button