×
কলকাতানিউজরাজ্য

৮ই জুনের আগেই রাস্তায় নামতে পারে বেসরকারি বাস, বৈঠকে ইতিবাচক সাড়া

Advertisement

বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের ভাড়া নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে বাস সংগঠনগুলির জটিলতার সৃষ্টি হয়েছিল। রাজ্য সরকারের নির্দিষ্ট করে দেওয়া ভাড়া নিয়ে বেসরকারি বাস সংগঠনগুলি বেঁকে বসে। তবে মঙ্গলবার পরিবহন দফতরের সঙ্গে চারটি বেসরকারি বাস ও মিনিবাস সংগঠনের মালিকের বৈঠক হয়। বাস সংগঠনের মালিকেরা জানিয়েছেন, বৈঠকটি ফলপ্রসূ হয়েছে। তবে তাঁরা সরকারের কাছে বেশ কয়েকটি দাবি তুলে ধরেছেন। দাবি গুলির মধ্যে অন্যতম হল, বেসরকারি বাস ও মিনিবাসের ভাড়া কাঠামো ঠিক করতে একটি রেগুলেটরি কমিটি তৈরি করতে হবে। বাসটিকে প্রতিদিন দুই বেলা নিয়ম করে স্যানিটাইজেশন করার জন্য সরকারি সাহায্য চাওয়া হয়েছে। এছাড়া বাস চালক, বাস কন্ডাকটর ও বাসের আরও সহায়কদের স্বাস্থ্যের জন্য বিমার বন্দোবস্ত করতে হবে।

Advertisement

এদিকে গত ১লা জুন দেশ জুড়ে আনলক-১ ঘোষণা হওয়ার পর এদিন বাস স্ট্যান্ডগুলিতে দীর্ঘ লাইন দেখা গিয়েছে। এদিকে সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ মেট্রোরেল পরিষেবা ও লোকাল ট্রেন পরিষেবা। যার ফলে বাসের উপরই নির্ভার করতে হচ্ছে মানুষকে। আর তাই সরকারের তরফ থেকে বেসরকারি বাস যাতে রাস্তায় নামে সে বিষয়ে দ্রুত সমাধানের কাজ চলছে। বাস সংগঠনের মালিকেরা বৈঠকের পর জানিয়েছেন, বাসের ভাড়া কাঠামো স্থির করবার জন্য যে রেগুলেটরি কমিটি গঠন করার কথা বলা হয়েছে সে বিষয়ে রাজি হয়েছে সরকার। বাকি দাবিগুলি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে আলোচনার পর জানা যাবে।

মঙ্গলবার পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, “উত্তরবঙ্গেও ক্রমে চালু হচ্ছে বাস পরিষেবা, জেলায় জেলায় মোটামুটি চলছে বাস। এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ রুটগুলিতেও বাস চলছে। ১৫ মিনিট অন্তর বাস চালুর ব্যপারটি দেখা হচ্ছে”।যদিও প্রথমে সরকারের তরফে জানান হয়, ২০ জনের বেশি যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যাবে না। এরপর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “যতগুলি সিট ঠিক ততজন যাত্রী নিয়ে চলবে বাস”। কিন্তু পুরোনো ভাড়ায় এত অল্পসংখ্যক যাত্রী নিয়ে বেসরকারি বাস রাস্তায় নামেনি। সংগঠনগুলি জানায়, ভাড়া না বাড়ানো হলে বাস নামবে না। এরপর এদিন বৈঠক হয় পরিবহন দফতরের সঙ্গে বাস সংগঠনের মালিকদের।

Advertisement

Related Articles

Back to top button