ক্রিকেটখেলা

আইপিএল-এর জন্য কমেন্টারি প্যানেলে নাম নেই সঞ্জয় মনঞ্জরেকরের

Advertisement

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) আইপিএল ২০২০ এর জন্য ভাষ্যকার প্যানেলটি চূড়ান্ত করেছে এবং এই তালিকায় বিশিষ্ট ভাষ্যকার সঞ্জয় মঞ্জরেকরের নাম অন্তর্ভুক্ত নেই। এই তালিকায় ভারতের সাবেক অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার এবং অঞ্জুম চোপড়া, হর্ষ ভোগলে, দীপ দাশগুপ্ত, রোহান গাভাস্কার, মুরলি কার্তিক এবং লক্ষ্মণ শিবরামকৃষ্ণন রয়েছেন। ৭১ বছর বয়সী গাভাস্কার সহ সমস্ত ভাষ্যকার সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে যাবেন এবং মাঠে থেকে ধারাভাষ্য করবেন। টি-টোয়েন্টি লিগের জন্য কমেন্টারি প্যানেলে তাকে ফিরিয়ে আনার জন্য দু’বার বিসিসিআইকে লিখেছিলেন তবুও মঞ্জেরেকের অনুপস্থিতি অবাক করেছে সকলকে।

তার অভিজ্ঞতা দেখলে তিনি প্রত্যাবর্তন করবেন বলে আশা করা হয়েছিল কিন্তু বোর্ড তাকে প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়নি। ২০১৯/২০ মরসুমের চূড়ান্ত সিরিজের আগে বিসিসিআই দ্বারা বরখাস্ত করা হয়েছিল মঞ্জরেকরকে। বিশ্বকাপের সময় রবীন্দ্র জাদেজাকে ‘বিটস ও পিসেস’ খেলোয়াড় বলার পরে তিনি প্রথমে স্ক্যানারের আওতায় এসেছিলেন। তিনি এই কথাটি উল্লেখ করে নিজেকে রক্ষা করেছিলেন যে তিনি এই শব্দটি কোনও এজেন্সির সাক্ষাৎকারে ব্যবহার করেছিলেন, ‘অন দ্যা এয়ার’ এ নয়।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ঐতিহাসিক গোলাপী বলের টেস্ট চলাকালীন, হর্ষ ভোগলের শংসাপত্র নিয়ে প্রশ্ন তোলার পরে মঞ্জেরেকর তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন। এর মাত্র চার মাস পরে মাঞ্জেরেকরকে বিসিসিআইয়ের ভাষ্য প্যানেল থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওপেনিং ওডিআইয়ের জন্য তিনি ধরমশালায় না যাওয়ার পরে এই খবর নিশ্চিত হয়ে যায়। তৎক্ষণাৎ তাকে বরখাস্ত করার বিষয়টি নিশ্চিত করে মাঞ্জেরেকর লিখেছিলেন: “আমি ধারাভাষ্যকে সর্বদা একটি বড় সুযোগ হিসাবে বিবেচনা করেছি, তবে কখনই অধিকার নয়। আমার নিয়োগকর্তারা তারা আমাকে রাখবেন বা না রাখবেন তা বেছে নিন এবং আমি সর্বদা এটির সম্মান করব।

আমার কাজ নিয়ে হয়তো বিসিসিআই খুশি হয়নি। আমি পেশাদার হিসাবে এটি গ্রহণ করি।” মাঞ্জেরেকর বিসিসিআইয়ের প্যানেলের অংশ না থাকায় তিনি সম্ভবত আইপিএল মরসুমে তিনি কোনও প্ল্যাটফর্মে নিজের দক্ষতা ভাগ করে নেবেন। বোর্ড এখনও ফিক্সচারগুলি প্রকাশ করতে পারেনি তবে আইপিএল-২০২০ ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

Tags

Related Articles

Back to top button