নিউজপলিটিক্সরাজ্য

পিএসি কমিটির চেয়ারম্যান হলেন মুকুল, রাজ্য সরকারকে তোপ শুভেন্দুর

পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন মুকুল রায়



সমস্ত জল্পনার অবসান, অবশেষে বিধানসভার পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হলেন মুকুল রায়। বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বসমক্ষে আজ মুকুল রায়ের নাম ঘোষণা করলেন। আর এই নাম ঘোষণা করার পর এই বিক্ষোভে ফেটে পরলো বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু বিজেপি যে এই বিষয়টি নিয়ে আগে থেকে সংঘাতের পথে হাঁটবে সেটা বোঝা যাচ্ছিল। মুকুল রায়ের নাম ঘোষণা হওয়ার পরে শাসক দলকে সরাসরি আক্রমণ করা শুরু করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

মুকুল রায় পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান হওয়ার পরে বিজেপির তরফ থেকে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “ক্ষমতার বলে পরিষদীয় রীতিনীতি ভাঙলেন অধ্যক্ষ। আমরা বিধানসভার একটি কমিটিও নিচ্ছি না। তৃণমূল যত পারে ক্ষমতা ভোগ করে নিক কারণ এটাই ওদের শেষ টার্ম।” শুভেন্দু অধিকারী আরো বললেন, “সরকারের যেমন খরচ করার অধিকার রয়েছে তেমন বিরোধীদের অধিকার রয়েছে সেই খরচের খতিয়ান খতিয়ে দেখার। কিন্তু এই সরকারের আমলে গণতন্ত্রে প্রথম এরকম হচ্ছে যেখানে বিরোধী পক্ষ থেকে পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান করা হচ্ছে না।”

পিএসি কমিটিতে ২০ জন সদস্যের মধ্যে ৭ জন বিজেপি থেকে আছে বলে জানিয়ে দিয়েছেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বিমানের বক্তব্যে পরে শুভেন্দু অধিকারী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বিজেপি থেকে আছেন ৬জন। মুকুল রায় এর মনোনয়ন বিজেপির পক্ষ থেকে জমা দেওয়া হয়নি।” বিজেপির বক্তব্য অনুযায়ী বোঝা যায় তারা চেয়েছিল যেন বালুরঘাটের বিধায়ক তথা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অশোক লাহিড়ী পিএসি কমিটির চেয়ারম্যান হন। কিন্তু, তার নাম মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হলেও সেই নাম প্রত্যাখ্যান করা হয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

অন্যদিকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বললেন, “আমরা আগেই বলে রেখেছি, পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান পদ যদি না পাওয়া যায় তাহলে আমরা ১০ কি ১২ আমরা কোন কমিটি নেব না।” শুভেন্দু অধিকারী বলছেন, ” এই সরকার চায়, নিজেরা খরচ করবে আবার নিজেরা হিসাব দেখবে। ” বিজেপির তরফ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই বিধানসভার কোন কমিটি বিজেপি নেবে না। যা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চাপানউতর চলছেই।

Related Articles

Back to top button