নিউজরাজ্য

সুখবর! এবার থেকে তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের সরাসরি নিয়োগ করবে রাজ্য

Advertisement

কলকাতা: পুজো আসতে আর মাত্র হাতে গোনা চারটে দিন বাকি। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের অবস্থা যখন উদ্বেগজনক, ঠিক তখনই মা আসছেন। আর মাকে সাদরে গ্রহণ করার জন্য রাজ্যে বারোয়ারি পুজো করার নির্দেশ ইতিমধ্যেই দিয়ে দিয়েছে রাজ্য সরকার। যদিও সমস্ত পুজো, উৎসবটাই করোনা বিধি এবং সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে করতে হবে। আর এর মধ্যেই একের পর এক বড় ঘোষণা করে চলেছে রাজ্য সরকার। আর এবার তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের জন্য রাজ্যের তরফ থেকে নিয়ে আসা হয়েছে সুখবর। আর সেই সুখবরটি হল, এবার থেকে কোনও এজেন্সি মারফত নয়, তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের সরাসরি নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার। শুক্রবারে এ কথা টুইট করে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ বিষয়ে টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘বাংলা তথ্যপ্রযুক্তি পরিষেবার জন্যই বিখ্যাত। আর তাই তরুণ তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী, যারা আমাদের রাজ্যের তথ্যপ্রযুক্তি পরিষেবা উন্নত করার জন্য লাগাতার কাজ করছে, তাদের জন্য সরকারের তরফ থেকে পুজোর উপহার। এবার থেকে আর Webel/WTL/ বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে নয়, এবার থেকে সরাসরি চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার।’

এর পাশাপাশি তিনি এমনটাও ঘোষণা করেছেন যে, নিয়োগ করা তথ্য প্রযুক্তি কর্মীরা সরকারের পক্ষ থেকে সমস্তরকম সরকারি সুযোগ-সুবিধা পাবে। এমনকি সরকারি নিয়ম অনুযায়ী এই তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার কর্মীরা বছরের ৩০ দিনের ছুটি এবং দশ দিনের মেডিকেল ছুটি পাবে। মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন যে, এই তথ্য-প্রযুক্তির সঙ্গে যুক্ত মহিলা কর্মীরা অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সময় মাতৃকালীন ছুটি পাবে। প্রত্যেক কর্মীদের সরকারের ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের আওতায় আনা হবে বলে জানা গিয়েছে। যাদেরকে নিয়োগ করা হবে তারা তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী হিসেবে ৬০ বছর পর্যন্ত কাজ করার সুযোগ পাবে এবং অবসরকালীন সময়ে তিন লাখ টাকা করে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে।

রাজ্য সরকারের এ হেন সিদ্ধান্তের ফলে রাজ্যে বহু চাকুরীজীবীরা নিশ্চিন্ত হয়েছে, এমনটা বলাই যায়। করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘ লকডাউনের জেরে বহু মানুষ কর্মহারা। আর এমন পরিস্থিতিতে পুজোর আগে রাজ্যের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের কাছে খুশির হাওয়া বয়ে নিয়ে এসেছে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Tags

Related Articles

Back to top button