নিউজরাজ্য

“সমস্ত রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে করোনার টিকা দেওয়া হবে”, চিঠিতে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) জানালেন, "আমাদের সরকার রাজ্যের সমস্ত মানুষকে বিনামূল্যে করোনার প্রতিষেধক পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে"

Advertisement

গত বছরের মার্চ মাস থেকে গোটা বিশ্ব তথা দেশবাসী করোনা ভাইরাস প্যানডেমিকের জন্য স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতে পারছে না। তবে স্বস্তির খবর ইতিমধ্যেই করোনার ভ্যাকসিন চলে এসেছে। এরইমধ্যে রাজ্যবাসীকে নতুন বছরের শুরুতে সুখবর শোনালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি গোটা রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে করোনার টিকা দিতে চান বলে জানিয়ে দিয়েছেন। গতকাল বিভিন্ন জেলার পুলিশ কর্তা ও স্বাস্থ্যকর্তাদের কাছে যে চিঠি দিয়েছে তাতে এমনটাই উল্লেখ করা আছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চিঠিতে লিখেছেন, “আমি অত্যন্ত আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে আমাদের সরকার রাজ্যের সমস্ত মানুষকে বিনামূল্যে করোনার প্রতিষেধক পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে।” গতকালই বাঁকুড়া, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম ইত্যাদি জেলার পুলিশ ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে এমন চিঠি মুখ্যমন্ত্রী পাঠিয়ে দিয়েছে।

কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রথমে ফ্রন্টলাইন কোভিড যোদ্ধারা করোনার ভ্যাকসিন পাবে। তাদের মধ্যে প্রথমেই আছে রাজ্যের সমস্ত ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। এছাড়াও প্রথম পর্যায়ে টিকা নিতে পারবে সাফাই কর্মী, পুরকর্মী, জেল কর্মী, পুলিশ, হোম গার্ড, সিভিক ভলেন্টিয়ার প্রমুখরা। তারপর এই টিকা পাবে যাদের বয়স ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে। এসময় টিকা পাবে যাদের কো-মরবিডিটি আছে। তাদের বয়স ৫০ বছরের কম হতে পারে। তারপর বাকি সবাই করোনার টিকা পাবে। কিন্তু এরই মাঝে রাজ্য সরকারের যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত যে তারা সমস্ত মানুষকে বিনামূল্যে করোনা টিকা দেবে।

Tags

Related Articles

Back to top button