টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Krushal-Adrija: ব্রেকআপের জল্পনায় জল ঢেলে আলোর উৎসবে ‘রানঝনা’ গানে ক্রুশলের সঙ্গে রোম্যান্স অদ্রিজার

গত সপ্তাহ থেকে শুরু হয়ে টলিপাড়ায় আলোর উৎসব। আর এই উৎসবে মেতে উঠলেন সকলের এই মিষ্টি লাভ বার্ডস। হ্যাঁ আমি হ্যান্ডসাম ক্রুশল আহুজা আর অদ্রিজা রায়ের কথা বলছি। ক্রুশল-অদ্রিজার গত বছর থেকে দীপাবলি একটু বেশি স্পেশ্যাল। কারণ গত বছর দীপাবলিতে ক্রুশল-অদ্রিজার ঘনিষ্ঠতা প্রথম প্রকাশ্যে আসে। এর পর থেকেই ইন্ডাস্ট্রিতে দুজনের প্রেমের গুঞ্জন শুরু হয়েছিল। এরপর বছর শেষে একসঙ্গে গোয়ায় ছুটি কাটাতে যাওয়া থেকে একসঙ্গে শান্তিনিকেতনে দোল উদযাপন করা সবই দর্শকরা দেখেছেন। একসময় এই চর্চিত লাভ বার্ডসের প্রেম একটা সময় ছিল টলিপাড়ার ওপেন সিক্রেট।

কিন্তু মাস কয়েক যেতে না যেতেই এবছর মে মাস থেকে সব কেমন থমকে গিয়েছিল। তবে আর দুরত্ব নয় বরং এই আলোর উৎসবে ফের একসঙ্গে অদ্রিজা-ক্রুশল! হ্যাঁ, সাত মাস পর সোশ্যাল মিডিয়াতে একসঙ্গে ধরা দিলেন দুজনে। তাও পুরো রোম্যান্টিক মুডে। প্র সোনম-ধনুশের জনপ্রিয় হিন্দি ছবি ‘রানঝনা’র গানে রোম্যান্টিক ডান্স স্টেপ করলেন দুজনে। এই ভিডিয়োতে সুন্দরী অদ্রিজার পরনে সাদা ক্রপ টপ আর নীল রঙা স্কার্ট, ক্রুশল পরেছেন সাদা পাঞ্জাবি আর লাল রঙা চোস্তা। দুজনের চোখে চোখে, হাতে হাত, পরস্পরকে কাছে টেনে নিলেন ক্রুশল-আদ্রিজা। আর আলোর রোশনাইতে সাজানো প্রেক্ষাপটে দুজনের রোম্যান্স ঝরে পড়ল প্রতি মুহূর্তে। 

ভিডিয়োর ক্যাপশনে ক্রুশল লিখেছেন, ‘দিওয়ালি রিল’। তবে এই রিল ভিডিয়োর পিছনের আসল সত্য কি ভেবেছেন? অদ্রিজার ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে, ক্রুশল-অদ্রিজার ব্রেকআপ আদপে কোনওদিনই হয়নি। কারণ দুজনের বন্ধুত্বেএ সম্পর্কের ডোর খুব মজবুত। তবে এদের সম্পর্ক এত চর্চা শুরু হয়েছিল তাই শুধু দুজন নিজেদের সম্পর্ক লোকচুক্ষর আড়ালে রাখতে চেয়েছিলেন। তাই কয়েকমাস ধরে দুজন সোশ্যাল মিডিয়ায় দীর্ঘসময় একসঙ্গে ধরা দেননি দুজনে। তবে দুজন দুজনকে ফলো করতেন।

তবে ক্রুশল আর অদ্রিজাকে একসাথে দেখতে পারে দুইজনের অনুগামীরা দারুণ খুশি। একজন অনুগামী লিখেই বসেছেন, ‘কতোদিন পরে তোমাদের একসঙ্গে দেখলাম, খুব ভালোলাগছে’। কেউ লিখেছেন, ‘যাক বাবা, ফাইনালি’। কেউ কেউ অবশ্য এদের রোম্যান্স দেখে বাঁকা মন্তব্য করতে ভোলেননি। অনেকে বলেছেন ক্রুশলকে নাকি স্বস্তিকা বা আঁচলের সঙ্গেই বেশি ভালো লাগে। তবে এসবে পাত্তা দেননি। তবে ক্রুশল আর অদ্রিজা নিজেদের সম্পর্কে আনুষ্ঠানিক শিলমোহর দেননি। প্রকাশ্যে বলেছেন, ‘আমরা শুধুই ভালো বন্ধু’। এখন দেখবার সাত মাসের দুরত্বের পর কি এবার প্রকাশ্যে শিলমোহর দেয় কিনা। তবে দুজনে নিজেদের ধারাবাহিকের কাক নিয়্র বেশ ব্যস্ত। বর্তমানে ক্রুশল জিটিভির ধারাবাহিক ‘রিসতো কা মানঝা’-তে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন। অন্যদিকে কালার্স বাংলার ‘মৌ-এর বাড়ি’ ধারাবাহিকে অদ্রিজা অভিনয় করছেন।

Related Articles

Back to top button