টলিউডবিনোদন

মা কণীনিকা ও মেয়ে কিয়ার, একরত্তি মেয়ের সঙ্গে আদুরে মুহূর্ত কাটালেন অভিনেত্রী কনীনিকা

কিছুদিন আগেই অভিনেত্রী কণীনিকা ব্যানার্জী (koneenica Banerjee ) নিজের বাড়িতে আয়োজন করেছিলেন সরস্বতী পুজোর। মেয়ে অন্তঃকরণা (Antahkarana)কে কোলে নিয়ে সরস্বতী পুজোর একটি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন অভিনেত্রী। স্বামী সুরজিত হরি(surajit hari)ও এদিন মেতে উঠেছিলেন বাণীবন্দনার আনন্দে। গোলাপি শাড়ি পরে হাতে পুতুল নিয়ে ছোট্ট অন্তঃকরণা মনে হয় মা সরস্বতীকে বলেছে, তাকে সুমতি দিতে। কিছুদিন আগেই মেয়ে ও স্বামীকে নিয়ে তিরুপতি গিয়েছিলেন কণীনিকা । সেখানে মানত অনুযায়ী দেড় বছরের অন্তঃকরণা বা কিয়ার চুল দান করেছেন কণীনিকা। দক্ষিণ ভারতের তিরুপতি তিরুমালা মন্দির অত্যন্ত জাগ্রত। এই মন্দিরে অনেকেই নিজের চুল দান করেন। মুন্ডিতমস্তক কিয়ার ছবি নির্দ্বিধায় সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন তার মা কণীনিকা। যথারীতি একরত্তি কিয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এছাড়াও মুন্ডনের পরে বাবার কোলে ছোট্ট অভিমানী কিয়ার একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন কণীনিকা। সেই কারণে কিয়া এই বছর সরস্বতী পুজোর দিন চুলে বেণী বাঁধতে পারেনি।

তিরুপতি তিরুমালা মন্দিরের আরও বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন কণীনিকা। ছবিগুলিতে কণীনিকার পরনে রয়েছে সাদা রঙের কেরালা কটন শাড়ি যার পাড় সোনালি। এছাড়া কণীনিকা হাতে পরেছেন শাঁখা-পলা ও নোয়া এবং সিঁথিতে সিঁদুর ও কপালে টিপ। কণীনিকার স্বামী সুরজিতের পরনে রয়েছে সাদা রঙের পাঞ্জাবি-পাজামা। কিয়ার পরনে ছিল সাদা ধোতি ও কুর্তি। তবে তার সাথেই কণীনিকা তাকে ফারের হুডি সোয়েটার পরিয়ে দিয়েছিলেন যাতে কিয়াকে একটি মিষ্টি খরগোশের মতোই লাগছিল।

এবার আন্তর্জাতিক নারীদিবসে কিয়া ও কণীনিকা দুজনেই একই রঙের পোশাক পরে করলেন উদযাপন। নারীদিবস উপলক্ষ্যে কিয়ার সঙ্গে নিজের ছবি শেয়ার করেছেন। কয়েকটি ছবিতে কিয়ার পরনে ছিল সবুজ রঙের সাফারি। এছাড়া একটি ছবিতে সাদা খাদির ফ্রক পরেছে কিয়া যাতে রয়েছে সোনালি রঙের কারুকার্য। কণীনিকার পরনে ছিল অফ হোয়াইট শাড়ি এবং কলারওয়ালা সবুজ রঙের ডিজাইনার ব্লাউজ। কণীনিকার হাতে ছিল কিয়ার মতো দেখতে একটি ছোট ডলপুতুল। সবুজ রঙের মাধ্যমে কণীনিকা ও কিয়া যেন সৃজনশীলতার বার্তা দিতে চেয়েছেন। নারীরাই তো সংসারের সৃজন করেন এবং সংসারে শান্তি বজায় রাখেন। আন্তর্জাতিক নারীদিবসে কিয়া ও কণীনিকার সুন্দর ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

2017 সালে পরিচালক সুরজিত হরির সাথে বিয়ে হয় কণীনিকার। 2019-এর মাঝামাঝি জন্ম হয় কিয়ার। বিয়ের পরেও সমানতালে অভিনয় করে চলেছেন কণীনিকা। পরিচালক জুটি শিবপ্রসাদ(shibaprasad) – নন্দিতা (Nandita) শিবিরের বিখ্যাত মুখ তিনি। বাংলা ফিল্ম ‘হামি’-তে নজর কেড়েছে কণীনিকার অভিনয়। ‘মুখার্জীদার বৌ’ ফিল্মে কণীনিকা প্রমাণ করে দিয়েছেন, একটি ফিল্ম একাই টেনে নিয়ে যেতে পারেন তিনি।

Related Articles

Back to top button