নিউজরাজ্য

করোনা দুর্নীতির তদন্ত করা হচ্ছে অভিযুক্তদের দিয়েই, রাজ্য সরকারকে তোপ রাজ্যপালের

Advertisement

কলকাতায় ফিরেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফিরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে বিঁধলেন নিজের বাক্যবাণে। এইদিন আবারও মমতা সরকারকে নিশানা করে তাদের দিকে আঙুল তোলেন তিনি। এইদিন কলকাতার নাইসেডে ট্রায়ালের উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল। বুধবার থেকে সেখানে শুরু করা হয়েছে করোনা টিকার প্রথম ট্রায়াল। সেখানে রাজ্যপাল স্বেচ্ছাসেবক হওয়ার ইচ্ছে ও প্রকাশ করেছেন।

বুধবার নাইসেডে ট্রায়ালের উদ্বোধনে এসে একের পর এক তীরে মমতা সরকারকে বিঁধলেন রাজ্যপাল। তার বক্তব্য,”বোঝা যাচ্ছে যে কেন আয়ুষ্মান ভারতের প্রয়োজন রয়েছে বাংলায়। করোনা পরিস্থিতির সময় প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র কেনার জন্য করা হয়েছিল টেন্ডার। কিন্তু সেই টেন্ডার থেকে কিছু মানুষ আয় করেছেন দুর্নীতি করে।” টেন্ডারের কাজের জন্য গঠন করা হয়েছিল কমিটি, সেই কমিটির লোকেরা দুর্তিনীর সাথে যুক্ত কিনা এমন প্রশ্ন ও তুলেছেন রাজ্যপাল। এছাড়া এইদিন রাজ্যপাল বলেন,” সরকারের কাজের মধ্যে নেই কোনও স্বচ্ছতা। করোনা চিকিৎসার সময় উপকরণ কেনার নামে করা হচ্ছে অর্থনৈতিক দুর্নীতি।” এইদিন রাজ্যপাল জানান যে তিনি ইতিমধ্যেই চিঠি দিয়েছেন রাজ্য সরকারকে। এখানেই থামেননি রাজ্যপাল। ধনখড় বলেন, দুর্নীতির তদন্ত করা হচ্ছে অভিযুক্তদের দিয়েই। এই বিষয়কে ঘিরে তীব্র আপত্তি জানান রাজ্যপাল।

প্রসঙ্গত, অন্যদিকে নাইসেডের শান্তা দত্ত জানিয়েছেন,”নাইসেডে ক্লিনিকাল ট্রায়ালের খবর প্রকাশ্যে আসার পরেই শুরু হয়ে গিয়েছে স্বেচ্ছাসেবকদের ফোন। প্রচুর মানুষ নিজে স্বেচ্ছাসেবক হতে চাইছেন।” এইদিন রাজ্যপাল নিজেও স্বেচ্ছাসেবক হবেন বলে দাবি করেন।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই কলকাতা পৌঁছেছে করোনা ভ্যাকসিন। বায়োটেকের তৈরি করা কো ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে নাইসেডে। সূত্রের খবর, বুধবার করোনার ভ্যাকসিন নিতে পারেন ফিরহাদ হাকিম ও।

Tags

Related Articles

Back to top button