দেশনিউজ

লাদাখ পরিস্থিতি অত্যন্ত সংকটজনক, বিদেশমন্ত্রীর গলায় উৎকণ্ঠার সুর

নয়াদিল্লি: সোমবার ভোররাতে লাদাখের প্রকৃত সীমান্ত রেখায় গুলি চালিয়েছে ভারতীয় সেনা। জানা গিয়েছে, পেট্রোলিং করার সময় চিনা সেনারা লাদাখের প্যাংগং লেকের দক্ষিণ প্রান্তে অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করে। ভারতীয় সেনা সতর্ক করলেও সেই সর্তকতাতে আমল দেয়নি লাল ফৌজ বাহিনী। ফলে বাতাসে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ভারতীয় সেনা। এমন পরিস্থিতিতে ভারত-চিন সীমান্তে অবস্থা সঙ্কটজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিদেশমন্ত্রী সুব্রহ্মণ্যম জয়শঙ্কর।

দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক স্তরের গভীর আলোচনার প্রয়োজন আছে বলে দাবি করেছেন বিদেশমন্ত্রী। দিন দুয়েক বাদে মস্কোয় সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনে যোগ দিতে যাবেন জয়শঙ্কর। সেখানে চিনা বিদেশমন্ত্রী ওয়াং-ই-এর সঙ্গে ভারত-চিন সীমান্তের পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক হতে পারে বলে সূত্রে খবর। তার আগে বিদেশমন্ত্রীর এমন মন্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

জয়শঙ্কর এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘দুই দেশের মধ্যে শান্তি ও স্থিতাবস্থা ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। দুই দেশের মধ্যে অন্যান্য সম্পর্কগুলো বজায় রাখতে গেলে ভারত-চিন সীমান্তের পরিস্থিতি আগে শান্ত করতে হবে। যে সকল সমস্যা আছে, তা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মিটিয়ে ফেলা দুই দেশের পক্ষে ভাল বলে দাবি করেছেন বিদেশমন্ত্রী।

তবে বেজিংয়ের পক্ষ থেকে কি সমঝোতার হাত বাড়ানো হবে? কারণ, রাশিয়ায় কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে দীর্ঘ আড়াই ঘণ্টার বৈঠক হয় চিনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেলের। এই বৈঠকের পর কোনও সমাধান সূত্র তো দূরে থাক, কার্যত ভারতকে এক ইঞ্চি জমি না ছাড়ার হুমকি দিয়েছিল বেজিং সরকার। সেক্ষেত্রে বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে চিনা বিদেশমন্ত্রীর বৈঠক হওয়ার পর আদৌ কোনও সুরাহা হবে কিনা, বা ভারত-চিন সীমান্তে শান্তি ফিরবে কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় দেখা দিয়েছে।

Tags

Related Articles

Back to top button