টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Adi Dev Chatterjee :বাড়িতে দুর্গাপুজো, সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি লিখল সুদীপার আদুরে ছেলে ছোট্ট আদিদেব

দুর্গাপুজোর আর বেশি দেরী নেই। যতই করোনা চোখ রাঙাক চারিদিকে পুজো পুজো রব৷ প্রস্তুতি জোড়কদমে চলছে। বালিগঞ্জ প্লেসে চট্টোপাধ্যায় পরিবারে প্রত্যেক বছরের মতো এবছর ও মাতৃ আরাধনা হচ্ছে। প্রতিবছর একটি চট্টোপাধ্যায় বড় করে দুর্গাপুজোর আয়োজন করা হয়। টলিপাড়ার অনেক তারকাই পুজোর কদিন অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ির দুর্গাপুজোর আনন্দে সামিল হতে দেখা গিয়েছে। তবে করোনার দাপটে গত দু’বছর পরিস্থিতি অনেকটাই আলাদা।

গতবছর শুধুমাত্র বাড়ির সদস্যদের নিয়েই আয়োজিত হয়েছিল সুদীপার বাড়ির দুর্গাপুজো। এবারেও করোনা আছে তবে করোনার ভ্যাক্সিন নেওয়াতে কিছুটা স্বস্তি আছে। তাই এবার লোকজনকে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হচ্ছে। তবে কোভিড বিধি মেনে গুটিকতক লোকজনের মধ্যেই তা সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে চট্টোপাধ্যায় পরিবারের দুর্গাপুজো। প্রতিবার চট্টোপাধ্যায় পরিবারের পুজোতে নিমন্ত্রিতদেরএকটি নিমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়। এই আমন্ত্রণ পত্রে ভিতরে লেখার ভার থাকে সুদীপা কিংবা অগ্নিদেবের।

তবে এবারে বাড়ির দুর্গা পুজোয় সুদীপা কিংবা অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায় এই দায়িত্বে নেই। কারণ এবার সকল অতিথিদের কাছে আমন্ত্রণপত্র পাঠাচ্ছে ৩ বছরের ছোট্ট আদিদেব। নিজের মত আদুরে ভাষায় সেই আমন্ত্রণপত্র লিখেছে সুদীপার চোখের মনি। এই আমন্ত্রণ পত্রে আদিদেব লিখেছেন, তাঁর বাড়িতে অসুর-টুসুর নিয়ে ইতিমধ্যেই মা দুগ্গা পাল বাড়িতে পুরো রেডি হয়ে আছে। তবে ”কোভিড এখনও চলে যায়নি বলে, শুনছি খুব কম লোককে ডাকতে হচ্ছে। বাবার মন খারাপ, বলছে এমন করে কাউকে ডাকা যায় নাকি?

মায়ের পুজোয় সব্বাই আসবে। মা তাই একেকদিন ৪০-৫০ জন করে ডাকছে।”  ছোট্ট আদিদেব আরও লিখেছে, যাঁরা কোভিডের কারণে আসবেন না, তাঁরা যেন তার মা সুদীপাকে জানায়, নাহলে বুবাইকাকুর কাছে তাঁর আদরের মাকে বকুনি খেতে হবে। আর নবমীর দিন বাড়ির ছাদেই খাওয়া দাওয়ার আয়োজন করা হয়েছে ,সেকথাও উল্লেখ করেছেন ছোট্ট আদিদেব। এমনকি সে এও বলেছে তাঁর মা রোজ বাড়ির ছাদ, সিঁড়ি আর রাস্তা স্যানিটাইজ করছে। এমনকি নিজের কাছে কোনও ফোন না থাকায়, অতিথিদের কোনও অসুবিধা হলে সঞ্জয়কাকুকে ফোন করতে বলেছে ছোট্ট আদিদেব। 

গতবারও ছোট্ট  সুদীপা ও অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের ছেলে আদিদেবকে বাড়ির সকলের সঙ্গে দুর্গাপুজোর আনন্দে মেতে উঠেছিলেন। গত বছর পুজোতে কেউ না থাকায় সেই সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছিলেন সুদীপা। এবারও সকলে তাঁর বাড়ির পুূজোয় হাজির থাকতে না পারলেও সঞ্চালিকার ফেসবুক পোস্টে পুজোর সমস্ত ছবি দেখতে পাবেন বলে মনে করছেন।

Related Articles

Back to top button