Today Trending Newsনিউজরাজ্য

সারদা মামলায় জামিন পেলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়, তবুও মিললো না স্বস্তি

সারদা চিটফান্ড মামলায় কুণাল ঘোষের পর এবার জামিন পেলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ থেকে মঞ্জুর হলো জামিনের আবেদন



দীর্ঘ ৮ বছর পরে সারদা চিটফান্ড মামলায় জামিন পেলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে এই মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। শনিবার ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের রায় অনুযায়ী জামিন পেলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। শুধু তাই নয় তার বিরুদ্ধে চলা সমস্ত সিবিআই মামলা থেকে তাকে মুক্তি দেওয়া হল। তবে শুধুমাত্র সেটা হবে এই রাজ্যের ক্ষেত্রে, অসম ও ভুবনেশ্বরে তার বিরুদ্ধে মামলা চলছে, সেই মামলা থেকে এখনো পর্যন্ত জামিন পাননি দেবজানি মুখোপাধ্যায়।

দীর্ঘ 8 বছর হয়ে গিয়েছিল সারদা চিটফান্ড মামলায় জেলে বন্দী ছিলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। ২০১৩ সালে তাকে সারদা মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে। কিছুদিন আগে এ মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছিলেন কুনাল ঘোষ। বর্তমানে তিনি তৃণমূল মুখপাত্র। কিন্তু দেবজানি এবং সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেনের জামিন নামঞ্জুর হয়ে যায়।

২০১৩ সালে সারদা-কাণ্ড প্রকাশ্যে আসার পরে দেবজানি মুখোপাধ্যায় কি নিয়ে কলকাতা ছেড়ে কাশ্মীরে গা-ঢাকা দিয়েছিলেন সুদীপ্ত সেন। তারা রাঁচি হয়ে গাড়ি করে সড়কপথে হরিদ্বার ও পাঞ্জাব হয়ে কাশ্মীর পৌঁছান। প্রথম দিকে তাদের নিয়ে কোনোরকম লিড পাওয়া যাচ্ছিল না, পরবর্তীতে দেবযানীর মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তৎকালীন তদন্তকারী আধিকারিকরা কাশ্মীরের ব্যাপারে জানতে পারেন। তারপর কাশ্মীরের সোমবার থেকে সুদীপ্ত সেন সহ তিন জনকে গ্রেফতার করে সিবিআই। তারপরে ট্রানজিট রিমান্ডে কলকাতা নিয়ে এসে তাদের বিরুদ্ধে মামলা চালানোর শুরু হয়। তাদের সাথেই সারদা মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন তৎকালীন সাংবাদিক এবং বর্তমান তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ। কিন্তু তিনি সারদা মামলায় টাকা নয়ছয় করার ব্যাপারে সরাসরি জড়িত না থাকার কারণে কিছুদিন আগে জামিন পেয়েছেন।

এর আগেও বহুবার কুনাল ঘোষ এর উদাহরণ তুলে জামিনের আর্জি জানিয়ে ছিলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায় এর আইনজীবীরা। কিন্তু মামলা বারংবার পিছিয়ে দিয়েছে সিবিআই। দেবযানী মুখোপাধ্যায় এর বিরুদ্ধে মামলা অন্তত ২৬ বার পিছিয়ে দিয়েছে সিবিআই কর্তৃপক্ষ, আর তার জন্য অত্যন্ত ক্ষুব্ধ বিচারপতি। টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে কুনাল ঘোষ জড়িত ছিলেন না সরাসরি জড়িত ছিলেন দেবযানী এবং সুদীপ্ত। সেই নিয়ে সিবিআই যথেষ্ট প্রমাণও তৈরি করেছিল বটে। এই কারণে এতদিন দেবযানী মুখোপাধ্যায় জামিন পাচ্ছিলেন না। তবে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত মামলা থেকে জামিন পেলেও এখনো অসম এবং ভুবনেশ্বরে তার বিরুদ্ধে মামলা চালানো হবে।

Related Articles

Back to top button