দেশনিউজ

সুখবর!! মার্চ মাসের মধ্যেই ভারতের বাজারে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন

Advertisement

সূত্রের খবর মার্চের মধ্যেই ভারতে আসতে পারে করোনা ভ্যাকসিন। ভারতে একক ভাবে তিনটি ভ্যাকসিনের কাজ চলছে তার মধ্যেই রয়েছে সেরাম। জানা গিয়েছে এই তিনটি গবেষণা তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের স্টেজে রয়েছে।সারা দেশে এই মুহূর্তে করোনার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে মোট ৭৪ লক্ষ। আর এই অবস্থায় করোনার ওষুধ পাওয়া অত্যন্ত দরকার।

সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর সুরেশ যাদব জানিয়েছেন সম্ভবত ২০২১ সালের মার্চ মাসের মধ্যে ভারতে চলে আসবে করোনার ভ্যাকসিন। সরকারি অনুমোদন পাওয়ার সাথে সাথেই তা বাজারে চলে আসবে। করোনা আবহে প্রত্যেকেই মৃত্যু ভয়ে রয়েছে। প্রাণে বাঁচতে সবাই এখন ভ্যাকসিন আসার দিন গুনছে। এমনকি গতকাল রাশিয়াও জানিয়েছে কয়েকদিন এর মধ্যেই তারাও করোনার ভ্যাকসিন বাজারে নিয়ে আসতে সক্ষম হবেন।

মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা ফাইজার জানিয়েছে, ট্রাম্প প্রশাসনের অনুমোদন মিললে জার্মান সংস্থা বায়োএনটেক-এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বানানো ভ্যাকসিন এবছরেই পাওয়া যেতে পারে। ইতিমধ্যেই রাশিয়া করোনার দ্বিতীয় ভ্যাকসিন ‘ইপিভ্যাক করোনা’ কে ছাড়পত্র দিয়েছে। দু মাস আগেই প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন করোনার প্রথম ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক-ভি’ এনেছিল। রাশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী তাতয়ানা গোলিকোভা নিজে ভ্যাকসিনটি নিয়েছেন।

সূত্রের খবর অনুযায়ী এই ভ্যাকসিনটি ক্যারিয়ার প্রোটিনের সঙ্গে সংশ্লেষিত। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে ৪০ হাজার স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। করোনার টিকা তৈরির দৌড়ে ছিল আমেরিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, রাশিয়া, ভারত-সহ বেশ কয়েকটি দেশ। এই মুহূর্তে বিশ্বে মোট ১৫০টি করোনা ভ্যাকসিন বানানো হচ্ছে। তার মধ্যে অন্তত ১০টি টিকা ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের শেষ পর্যায়ে।

Tags

Related Articles

Back to top button