ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

মাসে ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা ইনকাম, এক নজরে দেখুন এমন ১০ ব্যবসা

প্রতিটি মানুষের আজ স্বনির্ভর হওয়া খুব প্রয়োজন। পাশাপাশি বহু সাধারণ মানুষ আছেন যারা চাকরির থেকে অঢেল উপার্জনের জন্য ব্যবসা করব থাকেন। বেশ কিছু ব্যবসার মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ টাকা আয় করার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে অনেকে ব্যবসা শুরু করার আগে ভাবেন কোন ব্যবসায় কত তাড়াতাড়ি লাভ করা যায়। এই নিয়ে ধোঁয়াশা থেকে যায়। তাই এক নজরে দেখে নেওয়া যাক তেমন ১০ লাভজনক ব্যবসার বিষয়ে ।

১. দুধের ব্যবসা:যদি নিজেদের বাড়িতেই গরু আর মোষ থাকে তাহলে সহজেই সেই ব্যক্তি দুধের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আর যদি গরু আর মোষ না থাকে তাহলে আপনি একটি গরু থেকে ৩০ হাজার টাকায় এবং একটি মোষ ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকায় ক্রয় করতে পারবেন। ২টি গরু অথবা ২টি মোষ দিয়েই দুধের ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে। এই ব্যবসায় আপনি বেশ ভালো লাভ করতে পারেন।

২. ফুলের ব্যবসা: বর্তমানে একজন ব্যবসায়ীর কাছে ফুলের ব্যবসা একটি খুবই লাভজনক ব্যবসা। বিয়ের অনুষ্ঠান ছাড়াও ছোট-বড় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ফুলের চাহিদা প্রবল৷ এই জন্য গ্রাহকের সব সময়ই ফুলের চাহিদা রয়েছে। এছাড়াও এখন অনেকেই অনলাইনেই ফুল বিক্রি করেন। সূর্যমুখী, গোলাপ এবং গেঁদা ফুলের চাষও খুব লাভজনক। এই ফুলের ব্যবসায় আপনার ভালো লাভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৩. গাছ লাগানোর ব্যবসা: যাদের কাছে গ্রামের বাড়িতে খালি জমি রয়েছে তারা শাল, সেগুনের মতো দামি গাছের চারা লাগিয়ে ভালো আয় করতে পারেন। এই ধরনের গাছ লাগানোর পরে ৮ থেকে ১০ বছরের মধ্যেই আপনি মোটা অঙ্কের টাকা লাভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৪. মধুর ব্যবসা: মধুর ব্যবসা শুরু করার জন্য ব্যবসায়ীকে প্রথমে ১ থেকে ১.৫০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করতে হলেও এই ব্যবসায় ভালো লাভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এই ব্যবসা শুরু করার আগে সেই ব্যবসায়ীকে পাকাপোক্ত ভাবে ট্রেনিং নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

৫. সবজির ব্যবসা: একজন সবজি ব্যবসায়ী চাইলে বিভিন্ন সবজির চাষ করেও ভালো আয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর জন্য খুব বেশি জায়গার প্রয়োজন হয় না। এই ব্যবসার জন্য আবার সরকারের থেকে সাহায্যও পাওয়া যায়। সারা বছর যে সব সব্জির চাহিদা থাকে বলে এই সবজির ব্যবসায় ভালো আয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৬. পোলট্রির ব্যবসা: পোলট্রির ব্যবসায় খুব ভালো লাভ হলেও, এই ব্যবসা শুরু করার জন্য কিছু টাকা বিনিয়োগ করতে হবে ব্যবসায়ীকে। এই ব্যবসা শুরু করার জন্য সরকারের থেকে অগ্রিম মুদ্রা লোন পাওয়া যায়। এই লোনের মাধ্যমে পোলট্রির ব্যবসা শুরু করে ভালো আয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৭. বাঁশের ব্যবসা: বাঁশের চাষ করেও আপনার ভালো আয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমানে এর নানা ধরনের প্রোডাক্ট ভালোই জনপ্রিয়। এছাড়াও অনলাইনে এর প্রডাক্ট বিক্রি করে ভালো আয় করার সম্ভাবনা রয়েছে।

৮. মাশরুমের ব্যবসা: কোনো ব্যবসায়ী নিজেদের ঘরেই মাশরুমের চাষ করে নতুন ব্যবসা শুরু করতে পারে। এই ব্যবসাতে অল্প বিনিয়োগ এবং কম খাটনিতেই মাশরুমের ব্যবসা করতে পারেন। অন্তত ৫০ হাজার টাকা আয় করার সম্ভাবনা রয়েছে।

৯. মৎস্য পালনের ব্যবসা: মৎস্য পালনের ব্যবসার মাধ্যমে আপনার ভালো আয় করার সম্ভাবনা রয়েছে। এই ব্যবসার মাধ্যমে আপনি প্রায় লক্ষ টাকা আয় করা যেতে পারে।

১০. অ্যালোভেরার ব্যবসা: অ্যালোভেরার ব্যবসা বর্তমানে একটি খুবই লাভজনক ব্যবসা বলা যেতে পারে। অ্যালোভেরা এখন সাধারণ মানুষের বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়। এর ফলে এর প্রচুর চাহিদা রয়েছে।

Related Articles

Back to top button