আন্তর্জাতিকনিউজ

নয়া সংক্রমণ! মাথার কোষ খেয়ে নিচ্ছে ব্রেন-ইটিং অ্যামিবা, চিন্তায় আমেরিকার নাগরিকরা

আমেরিকাঃ গবেষকদের মতে এটি একটি ব্রেন-ইটিং অ্যামিবা এর বিজ্ঞানসম্মত নাম ন্যাগ্লেরিয়া ফাওলেরি। এই ব্যাকটেরিয়া শরীরে প্রবেশ করে আমাদের মাথার কলা ও কোষগুলিকে ধীরে ধীরে নষ্ট করে দেয় যার ফলে মৃত্যুর হার ৯৭ শতাংশের বেশি বেড়ে যায়। জানা গিয়েছে জলের মধ্যে থাকা সূক্ষ্ম সূক্ষ্ম অ্যামিবা প্রথমে নাক দিয়ে শরীরে প্রবেশ করে। এরপর মাথার দিয়ে মাথার কলা ও কোষগুলিকে ধ্বংস করে।

এই অ্যামিবা সাধারণত জলাশয় যেমন লেক, নদী, কোনও বদ্ধ জলাশয় যেমন সুইমিং পুল, ফোয়ারা, দীর্ঘ দিনের সঞ্চিত জলাধারে দেখা যায়। আর সেখান থেকেই মানুষের শরীরে প্রবেশ করে। এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রথম সপ্তাহে মাথাব্যথা, জ্বর, সর্দি-কাশি, বমি-বমি ভাব, ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়া এই ধরনের উপসর্গ দেখা যায়। পরের দিকে শরীরের ভারসাম্য হারানো, মাথা ঘোরানো এসব শুরু হয়, এরপর ১২ দিনের মধ্যেই মৃত্যু হয় আক্রান্তের।

এখনো পর্যন্ত এই রোগের ওষুধ না মেলায় যথেষ্ট চিন্তিত আমেরিকার সাধারণ মানুষ। ইতিমধ্যেই আমেরিকার লেক জ্যাকশন, ব্রাজোরিয়া, ফ্রিপোর্ট, এনগ্লিটন, রিচউড, ওস্টার ক্রেক, ক্লুট, রোজেনবার্গ শহরেও মিউনিসিপ্যালিটির জলে পাওয়া গেছে এই মস্তিষ্কখেকো অ্যামিবা। এর আগে আমেরিকায় নায়েগ্লেরিয়া ফাওলেরি নামক এই অনুজীবের সংক্রমণে অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন।

২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মোট ৩৪ জন এই অ্যামিবা সংক্রমণে মারা গিয়েছেন। এর মধ্যেই জল নিয়ে ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। মানুষের নিরাপত্তার কথা ভেবে জারি করা হয়েছে সতর্কতা। জানা গিয়েছে শিল্পাঞ্চলের কাছাকাছি এলাকার দূষিত জল, দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার না হওয়া সুইমিংপুল এমন জায়গাতে দ্রুত ছড়ায় এই অনুজীব।

 

Related Articles

Back to top button