বলিউডবিনোদন

ওয়েব সিরিজে কাজের নামে ব্যক্তিগত ছবি আদায়, পরে ব্ল্যাকমেল বাঙালি অভিনেত্রীকে

অভিনেত্রীকে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার নোংরা প্রস্তাব দেওয়া হয়

বর্তমান সময়ে সিনেমা সিরিয়ালের পাশাপাশি গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রিতে এক নতুন সংযোজন হয়েছে ওয়েব সিরিজের। আসলে প্রযুক্তির সাথে খাপ খাইয়ে চলতে গিয়ে এখন প্রত্যেকেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিভিন্ন ওয়েব সিরিজ দেখতে পছন্দ করেন। বাংলা, হিন্দি এবং অন্যান্য আঞ্চলিক ভাষার বেশ কিছু ওয়েব সিরিজ টেক্কা দেয় বড় বাজেটের সিনেমাকেও। তবে গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির এই ঝকঝকে সাজানো মঞ্চের মধ্যেও রয়েছে প্রতারণার অন্ধগলি। সম্প্রতি কলকাতার এক অভিনেত্রী এমনই এক প্রতারণার জালে জড়িয়ে পড়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বাঙালি অভিনেত্রী জানিয়েছেন যে মুম্বাইয়ের এক যুবক পরিচালক সেজে তাঁর সাথে প্রতারণা করেছে। ঠিক কি হয়েছিল ব্যাপারটা? জানা গিয়েছে, কলকাতার বাসিন্দা ওই বাঙালি অভিনেত্রী টলিউডের কয়েকটি বাংলা ফিল্মে অভিনয় করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মুম্বাইয়ের ওই যুবক বাঙালি অভিনেত্রীর সাথে যোগাযোগ করেন এবং ওয়েব সিরিজে কাজ পাইয়ে দেওয়ার টোপ দেন। এরপরই ওয়েব সিরিজের কাজের জন্য অভিনেত্রীর কিছু ব্যক্তিগত ছবি নিয়ে নেন ওই যুবক। তারপরই অভিনেত্রীকে ব্ল্যাকমেল করা হয় এবং শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার নোংরা প্রস্তাব দেওয়া হয়। প্রস্তাবে রাজি না হলে অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল করার হুমকিও দেয় ওই যুবক।

বাঙালি অভিনেত্রী এরপর মুম্বাইয়ের মালাড থানায় লিখিত অভিযোগ জানান। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করতে নেমে মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, “অভিযুক্ত যুবকের নাম ওমপ্রকাশ তিওয়ারি। তিনি প্রকাশ নামে সর্বাধিক পরিচিত। মুম্বাইয়ের বেশ কয়েকটি প্রোডাকশন হাউসে কাজ করার কারণে কিভাবে ফ্লিম বা ওয়েব সিরিজের জন্য অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাস্টিং করা হয় তিনি জানেন। সেই সুযোগ নিয়ে প্রকাশ নামক ব্যক্তিটি কাস্টিং ডিরেক্টর হিসেবে পরিচয় দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রোফাইল খুলে বাঙালি অভিনেত্রীর সাথে যোগাযোগ করেন।”

ইতিমধ্যেই মুম্বাই মালাড পুলিশের সাইবার সেল প্রকাশ নামক ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে হেনস্থা, ব্ল্যাকমেল এবং প্রতারণা সহ একাধিক মামলা রুজু করা হয়েছে। এরপর এই জালিয়াতির সাথে আরও কেউ জড়িত আছে নাকি তা জানার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button