নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বাংলার মুসলিমরা সব থেকে বেশি অশিক্ষিত এবং গরীব, দিলীপ ঘোষ

টিটাগর এর চা চক্র থেকে রাজ্য সরকারকে একহাত নিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ( Dilip Ghosh)

Advertisement

উত্তর ২৪ পরগনার টিটাগর রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) এদিন যোগ দিলেন একটি চা চক্রে। সেখান থেকে আবারও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) তোষণ রাজনীতি নিয়ে সরব হলেন দিলীপ ঘোষ। তিনি দাবি করেছেন, পশ্চিমবঙ্গের মুসলমানরা দেশের মধ্যে সবথেকে বেশি গরিব এবং অশিক্ষিত। এবং সংখ্যালঘুদের এই অনুন্নয়নের জন্য দায়ী সম্পূর্ণরূপে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। এমনকি ভাতা বৈষম্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন দিলীপ ঘোষ। তার দাবি,” ইমামদের ২ হাজার টাকা আর পুরোহিতদের ১ হাজার টাকা করে কেন দেওয়া হচ্ছে? সকল কেই ২ হাজার টাকা করে দিন।” তার আরও বক্তব্য, ” রাজ্যে তো ৮ হাজার না, ৮০,০০০ পুরোহিত আছেন। সকলকে ভাতা দেওয়া হোক।”

এরিন চা চক্র থেকে রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (Jyotipriya Mollick) এবং সৌগত রায় (Sougata Roy) কে কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ। সম্প্রতি রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেছিলেন, আর কিছুদিনের মধ্যেই ৭জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন। সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিলীপ ঘোষ সেদিন বললেন, ” ৭ জন তো দুর, আমার ২ জন বুথ সভাপতি কে নিয়ে যেতে পারবে না।’

ইদানিং সৌগত রায় ধারাবাহিকভাবে বিজেপি রাজ্য সভাপতি কে কটাক্ষ করে চলেছেন। তার প্রত্যুত্তরে দিলীপ ঘোষ বলেছেন,” উনি আমাকে খুব ভালোবাসেন।” এছাড়াও রাজ্যের শিল্পনীতি নিয়ে এদিন রাজ্য সরকারকে এক হাত নিলেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন,” রাজ্য সরকার সিলিকন ভ্যালি বানিয়েছে। এখন সেখানে গরু-ছাগল চড়ে বেড়াচ্ছে। আমাদের এখন সিলিকন ভ্যালি চাইনা। বাংলার ছেলেদের যেন বুড়ো বাবা মাকে ছেড়ে না যেতে হয় আমরা সেই বাংলা চাই।”

এছাড়া ওই দিন ভোটের আগে বিজেপি পরিবারকে আরো বড় করার অঙ্গীকার দিয়ে গিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন বিজেপি দেশের তো বটেই বিশ্বের সবথেকে বড় রাজনৈতিক দল। সবাইকে বিজেপি পরিবারের শামিল করা হবে। তিনি সকলকে স্বাগত জানাবেন। তবে দল ঠিক করবে কাকে কোন জায়গা দেওয়া হবে। তার মতামত, খুব শীঘ্রই এই বাছাবাছি শুরু হবে।

Tags

Related Articles

Back to top button