অফবিটআন্তর্জাতিকসবুজায়ন

আন্টার্টিকার বরফে রক্তপাত, সাদা বরফের মধ্যে দিয়ে লাল রক্তের মত কি?

শ্রেয়া চ্যাটার্জি : আন্টার্টিকায় বরফের মাঝখানে দেখা যাচ্ছে লাল লাল রক্তের মত দাগ। আপনি এক পলকে দেখলে হঠাৎ করে ভয়ে শিউরে উঠবেন। কিন্তু না আপাতত ভয় পাওয়ার কিছু নেই। বরফের মধ্যে গজিয়ে উঠেছে তুষার শ্যাওলা। যেগুলি লাল রঙের বা হালকা গোলাপি। আন্টাকর্টিকা তে গ্রীষ্মকালে যখন আস্তে আস্তে বরফ গলে তখনই এই শ্যাওলা দের আবির্ভাব হয়।

বরফের মধ্যে এমন শ্যাওলা তৈরি হওয়ার ফলে এই বরফ অনেক সূর্যের তাপ কে প্রতিফলন কম করে, অনেক বেশি তাপ শোষণ করে, যার ফলে বরফ গলে যায় এবং শ্যাওলাদের জন্য বেড়ে ওঠার উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি হয়। এমন তুষারকে ‘ওয়াটার মেলন স্নো’ বলা হয়। তবে এই তুষার কিছু নতুন নয়, এমন ঘটনা দেখা গিয়েছিল প্রায় ২০০০ বছর আগে আবিষ্কার করেছিলেন গ্রিক দার্শনিক অ্যারিস্টোটল। তিনি তার ‘হিস্ট্রি অফ এনিম্যালস’ এই গ্রন্থটিতে এই লাল রঙের তুষারের কথা বর্ণনা করেছেন।

তবে আপাতদৃষ্টিতে এই দৃশ্যটি হয়তো আমাদের চোখকে আনন্দ দিচ্ছে, যে বরফের মধ্যে লাল রঙের ছটা। কিন্তু এটি দেখে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা কিন্তু যথেষ্ট চিন্তিত। তাদের মতে, এ ধরনের শ্যাওলা তৈরি হওয়ার ফলে অনেক বেশি বরফ গলে যাচ্ছে। আর এমনিতেই বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে দুই মেরুর বরফ গলতে বসেছে। যা গোটা পৃথিবীর কাছে একটা আশংকার বিষয় বটে।

Related Articles

Back to top button