টলিউডবিনোদন

ছোটা হিরো ইউভানকে কোলে নিয়ে বেরিয়ে পড়লেন অভিনেত্রী শুভশ্রী, ভাইরাল ইউভানের নতুন ছবি

সম্প্রতি ইন্সটাগ্রামে ইউভানের একটি ছবি পোস্ট করা হলো শুভশ্রীর ফ্যান ক্লাব থেকে। ইউভানের ছবি শেয়ার করে ক্যাপশন দিয়ে লেখা হয়েছে, খুব মিষ্টি একটি শিশুর ছবি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শুভশ্রী মাস্ক পরে ইউভানকে নিয়ে বাইরে যাওয়ার জন্য রেডি হয়েছেন। ইউভানের অন্যান্য ছবির মতো এই ছবিটিও সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছে।

এখন টলি-টাউনের সবচেয়ে বড় স্টার হলো পরিচালক রাজ চক্রবর্তী ও অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীর একমাত্র পুত্রসন্তান ইউভান। তার জন্মের পর থেকে রাজ ও শুভশ্রী ইউভানের একের পর এক ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে চলেছেন। এই মুহূর্তে ইউভান স্টারডমের দিক থেকে ছাড়িয়ে গিয়েছে তার বাবা-মা রাজ ও শুভশ্রীকেও। কিছুদিন আগেই মাসির বাড়ির দুর্গাপূজায় ছোট্ট ধুতি-পাঞ্জাবি পরে সাবেকি সাজে ইউভানকে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু ইউভান মাসির বাড়ির দুর্গাপূজায় পুরো সময়টাই ঘুমিয়ে কাটিয়েছে। আপাতত দুর্গাপূজা কেটে গেলেও নেটিজেনদের ‘ইউভান ম্যানিয়া’ এখনও কাটেনি। তাই এবার ইউভান সবার সামনে এলো ‘ছোটা হিরো’ সেজে। সম্প্রতি রাজ ইউভানের একটি ছবি শেয়ার করেছেন ইন্সটাগ্রামে। ছবিতে ইউভানের পরনে রয়েছে হাতা গোটানো সাদা শার্ট ও জিনসের প্যান্ট। ইউভানের এই ছবিটি নেটিজেনদের কাছে প্রশংসনীয় হয়েছে। এমনকি টলি সেলেবরাও ইউভানের এই ছবিটির প্রশংসা করেছেন। অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি ইউভানের ছবির নিচে কমেন্ট করে লিখেছেন, ইউভান একজন সুপারস্টার। কিন্তু ইউভানের মা শুভশ্রী লিখেছেন, ইউভান একটা রাউডি বেবি। প্রতিবারের মতো ইউভানের এই ছবিটিও যথেষ্ট ভাইরাল হয়েছে। কিন্তু ইউভানের এই ছবিটিতে নেটিজেনদের একাংশ কটাক্ষ করে ‘গরিবের তৈমুর’ বলেছেন। নেটিজেনদের এই ধরনের মন্তব্যে শুভশ্রী ও রাজ কোনো প্রতিক্রিয়া না দিলেও শ্রাবন্তী বলেছেন, কোন শিশুকে সোশ্যাল মিডিয়ায় এইভাবে ট্রোল করার আগে মানবিক দিকটাও ভাবুন।

কিন্তু এই স্টারডম ইউভানের শৈশবে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে বলে মনে করছেন শিশু বিশেষজ্ঞরা। এমনিতেই স্টার-কিড হয়ে জন্মালে দর্শকদের তরফে প্রত্যাশা অনেক বেশি থাকে। স্টার-কিডরা বড় হতে হতে তাঁদের কেরিয়ারের সঙ্গে তুলনা শুরু হয় তাঁদের বাবা-মায়ের কেরিয়ারের। ফলে অনেক স্টার-কিড অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

প্রকৃত পক্ষে ইউভানকে শুভশ্রী ও রাজ তাঁদের সৌভাগ‍্যের প্রতীক মনে করেন। ইউভানের জন্মের আগে রাজের পরিবার এক নিদারুণ বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান রাজ চক্রবর্তীর বাবা। ফলে রাজের পুরো পরিবার বেশ কিছু সময়ের জন্য কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। এইসময় অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী রাজকে টুইট করে মন শক্ত করার পরামর্শ দেন। এরপর জন্ম হয় ইউভানের। ইউভানের জন্মের পর রাজের পরিবারে এসেছে একঝলক খুশির হাওয়া। রাজের মা-ও মেতে উঠেছেন নাতিকে নিয়ে। শোকবিহ্বল অবস্থা থেকে পরিবারকে বের করে নিয়ে এসেছে ইউভান।

Related Articles

Back to top button