আন্তর্জাতিকনিউজ

ব্যর্থ চিনা সেনাকে ফের লাদাখে পাঠাতে পারে চিন, দাবি মার্কিন সংবাদ সংস্থার

চিন ভারতের দ্বন্দ্বের মাঝেই আরো একবার জল্পনা উস্কে জানানো হয়েছে চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর নির্দেশেই লাদাখে আক্রমণাত্মক পদক্ষেপ নিয়েছিলো চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। আমেরিকার এক সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে চিনের এই আক্রমণের পিছনে মূল মাথা হলেন খোদ শি জিনপিং।  এমনকি বলা হয়েছে লাদাখে একবার ব্যর্থ হয়ে জিনপিং ফের ভারতে হামলার জন্য চিনা সেনাকে নির্দেশ দিতেও পারেন।

ওই সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে, “শি যিনি কিনা ভারতে পিপলস লিবারেশন আর্মির আক্রমণাত্মক পদক্ষেপের প্রধান কারিগর, ভাবতে পারেননি যে তাঁর পরিকল্পনা এ ভাবে ফ্লপ হয়ে যাবে। ভারতের সীমান্তে চিনা সেনার ব্যর্থতার আরও পরিণতি অপেক্ষা করছে”। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই প্যাঙ্গন লেকের চারপাশে ভারতীয় সেনা জওয়ানদের কড়া পাহারা থাকার কারণে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকতে ব্যর্থ হয় চিন।

এরপরেই ভারতীয় সেনার তাড়া খেয়ে নিজেদের অংশে ফিরে যেতে বাধ্য হয় চিনা সেনারা।মে মাস থেকে দখল করে রাখা ফিংগার-ফোরে মঙ্গলবার প্রবেশ করে চিনা সেনারা। মোটর বোটে চেপে ভারতীয় ভূখণ্ডের ভেতর প্রবেশ করার সাথে সাথেই তাদের তাড়া করে ভারতীয় সেনারা আর এই ঘটনার পরেই পাত তারি গুটিয়ে নিজেদের এড়িয়ায় পাড়ি দেয় চিন সেনারা। আর এই নিয়ে এখন দু দেশের মধ্যে বিবাদ চরমে। এমনকি এসব নিয়ে

কিছুদিন আগেই মস্কোয় সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন সম্মলনে চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ওয়ে ফেনঘের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজনাথ সিং। সেখানে তাদের আলোচনার বিষয় হয় লাদাখ সীমান্তের বিবাদ। তবে এই নিয়ে আজ মস্কোয় ভারত এবং চিনের দুই বিদেশমন্ত্রীও আলোচনায় বসেন। মস্কোয় তাঁর কাউন্টারপার্ট ওয়ে ফেনঘেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়েছিলেন, চিনা সেনার কার্যকলাপ প্রকৃত সীমান্ত রেখায় বিঘ্নিত করছে আর এই নিয়ে দুই দেশের মধ্যে একটা আলোচনা করা ভীষণই প্রয়োজন। এরপরেই দুই দেশের মধ্যে একটা মধ্যস্থতা দেখা দিলেও চিন আবার নতুন করে ঝামেলা বাধায়। সব মিলিয়ে ভারতের ওপর চিনের আক্রমণ এখন রোজকার ঘটনা আর যার কেন্দ্রবিন্দুতে আছে শি জিনপিং।

Tags

Related Articles

Back to top button