Today Trending Newsজীবনযাপনদেশনিউজস্বাস্থ্য ও ফিটনেস

কোন রক্তের গ্রুপে সবথেকে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন করোনায়? জানালেন বিজ্ঞানীরা

এছাড়াও বিজ্ঞানীরা বলেছেন যারা নিরামিষাশী তারা কম করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন

×
Advertisement

কোভিড আক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে একেবারে নাজেহাল হয়ে পড়েছে গোটা ভারত। প্রতিদিন বহু মানুষ এই নতুন ভাইরাসের জন্য আক্রান্ত হচ্ছেন। এবারে সিএসআইআর তার একটি নতুন পরিসংখ্যান নিয়ে এসে একেবারে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে দিয়েছে। এই পরিসংখ্যানে বেশকিছু নজরকাড়া তথ্য আমরা দেখতে পাচ্ছি। দেখা যাচ্ছে যাদের দেহে এবি এবং বি গ্রুপের রক্ত আছে তারা করণা আক্রান্ত তাড়াতাড়ি হচ্ছেন। অন্যদিকে এই সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যারা নিরামিষাশী তারা কম করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। যারা তুলনামূলকভাবে আমিষ বেশি খান তাদের ক্ষেত্রে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

Advertisement

অন্যদিকে যাদের ব্লাড গ্রুপ ও, তাদের দেহে করোনা আক্রমণের সম্ভাবনা কম। নিরামিষ খাবারের তন্তু থাকে অনেক বেশি। এই ধরনের তন্তু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সহায়তা করে। এই বিষয়টি নিয়ে ১৪০ জন চিকিৎসক ১০,০০০ মানুষের ওপরে রিসার্চ করেছেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, সবথেকে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন এবি ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা। তারপরে সব থেকে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন বি ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা।

যাদের ব্লাড গ্রুপ ও তাদের আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা সবথেকে কম। যদিও এই সমস্ত কিছু কিন্তু জিনের ওপর নির্ভর করে। চিকিৎসক অশোক শর্মা জানাচ্ছেন, যদি কেউ থালাসেমিয়া যুক্ত হন তাহলে তিনি কম ম্যালেরিয়া আক্রান্ত হন। সেরকম, এক পরিবারের সব সদস্য করণা আক্রান্ত হতে পারেন কিন্তু হয়তো একজন করোনা আক্রান্ত হলেন না। পুরোটাই জিনের ওপর নির্ভর করে।

Advertisement

তিনিও জানাচ্ছেন, যারা ও ব্লাড গ্রুপের রক্ত বহন করেন তাদের ক্ষেত্রে রোগপ্রতিরোধের ক্ষমতা অনেক বেশি। এই কারণেই তারা এই ধরনের ভাইরাসকে একটু বেশি প্রতিরোধ করতে পারেন। তবে ডাক্তার এসকে কার্লার জানিয়েছেন, “এখনই এটা বলা ঠিক হবে না যে ও ব্লাড গ্রুপের মানুষের এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। কিন্তু এটা ঠিক যে যাদের ও ব্লাড গ্রুপ রয়েছে তারা করণাতে কম আক্রান্ত হয়েছেন এবং অনেকে করোনা লক্ষণ প্রকাশ করছেন না।

Related Articles

Back to top button