নিউজরাজ্য

রাজ্যজুড়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস, কোথায় কবে বৃষ্টি? জানুন আভাওয়ার আপডেট

আদৌ কি শিলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে?

×
Advertisement

বৈশাখের তীব্র দাবদাহে এরমধ্যে শহরের আকাশে মেঘের ঘনঘটা। তাহলে কি এবারে বৃষ্টি আসতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গে? এই প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছে গরমে হাঁসফাঁস শহরবাসীর মনে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, সারাদিন মেঘলা আকাশ বজায় থাকবে আজকে। তার পাশাপাশি আজকে সম্ভাবনা রয়েছে বৃষ্টির। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া ভ্যাপসা এবং অস্বস্তিকর পরিবেশ থেকে আপনাকে রক্ষা করতে পারে। ইতিমধ্যেই একনাগাড়ে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি হলেও দক্ষিণবঙ্গে তেমন কিছু বৃষ্টি হয়নি। তবে এবারে সুখকর খবর দিয়েছে হাওয়া অফিস।

Advertisement

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের খবর আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের একাংশে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যেই পশ্চিমের পাঁচটি জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সঙ্গে সঙ্গেই ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়ার সর্তকতা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝারগ্রাম এই পাঁচটি জেলার জন্য সর্তকতা জারি করা হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে। বজ্রপাতের আশঙ্কায় বসিলা বৃষ্টির আশঙ্কা থাকায় এই পাঁচ জেলার বাসিন্দাদের এই মুহূর্তে বাড়ির বাইরে যাওয়ার সময় সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে উত্তর এবং দক্ষিণ বঙ্গের সবকটি জেলাতেই আগামীকাল বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সঙ্গেই ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে দমকা ঝড়ো হাওয়া এবং কালবৈশাখী সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতাতেও। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহার জেলায় শুক্রবার এর পরেও বৃষ্টিপাত চলবে। শনিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের কিছু জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

Advertisement

শুষ্ক আবহাওয়া ও পরিষ্কার আকাশ থাকার জন্য তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। আগামী ৪৮ ঘন্টায় পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলোতে তাপমাত্রা ২ ডিগ্রী থেকে ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত কমতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। অন্যদিকে ঝাড়গ্রাম এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে কয়েক ঘন্টার মধ্যেই ঝড়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে। পূর্বাভাস অনুসারে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া ও সাথেই বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

Related Articles

Back to top button