নিউজপলিটিক্সরাজ্য

আলিপুরদুয়ারে টিকাকরণের তালিকায় প্রথম নাম তৃণমূল নেতার, কোভিডযোদ্ধা না হয়ে কি করে তার নাম এল?

সৌরভ চক্রবর্তী (Sourav Chakraborty) বলেছেন, "জনগণ যখন টিকা নেবে, তখনই আমি টিকা নেব"

×
Advertisement

আজ অর্থাৎ ১৬ জানুয়ারি শনিবার থেকে দেশজুড়ে করোনা টিকাকরন প্রক্রিয়া চালু হয়েছে। এই সময় প্রথম দফায় প্রায় ৩ কোটি মানুষকে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কিন্তু টিকাকরণের প্রথম দিনেই শুরু হলো রাজনৈতিক তরজা। এখন শুধুমাত্র কোভিড যোদ্ধাদের টিকা পাওয়ার কথা। কিন্তু এরই মধ্যে ভ্যাকসিন প্রাপকের তালিকা তৃণমূল বিধায়কের নাম দেখা গেল। ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরদুয়ারে। সেখানে জেলার ভ্যাকসিন প্রাপকদের যে তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে তার প্রথমেই আছে তৃণমূল বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর (Sourav Chakraborty) নাম।

Advertisement

গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরে তরফ থেকে টিকা প্রাপকদের একটি তালিকা প্রকাশ্যে আনা হয়। সেই তালিকায় প্রথমেই দেখা যায় আলিপুরদুয়ারের তৃণমূল বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর নাম। তার নাম কি করে কোভিদ যোদ্ধাদের মাঝে এল তা নিয়ে হইচই পড়ে যায়। এই বিষয়ে বিজেপি সাধারণ সম্পাদক সুমন কাঞ্জিলাল বলেছেন, “আইন সকলের জন্যই সমান হয়। দেশজুড়ে আজ করোনার টিকা দেয়া হবে। কিন্তু সেই টিকার শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর্মী, ডাক্তারদের পাওয়ার কথা। এই কথা বেঁধে দিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী। কিন্তু তারপরও আলিপুরদুয়ারের কিভাবে এই নিয়ম ভাঙা হচ্ছে। এর ব্যাখ্যা দিতে হবে।”

যদিওবা সৌরভ চক্রবর্তী বলেছেন, “আমি আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রোগী কল্যান সমিতির চেয়ারম্যান। জলপাইগুড়ি জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরে আমি গুরুত্বপূর্ণ পদে আছি। কোভিড পরিস্থিতিতে প্রথম সারির মানুষদের পাশে আমায় সারাক্ষণ থাকতে হয়। তাই স্বাস্থ্য বিভাগ আমার নাম প্রথমে রেখেছে। এই সম্মান পেয়ে আমি কৃতজ্ঞ। তবে জনগণ আগে। তাই এই টিকা সাধারণ মানুষ যখন পাবেন তখন আমি নেব।”

Advertisement

অন্যদিকে আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক গিরিশচন্দ্র বেরা বলেছেন, “আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান সৌরভ চক্রবর্তী। তাকে সম্মান জানানোর জন্যই আমরা তার নাম প্রথমে রেখেছিলাম। কিন্তু তিনি নিজেই জানিয়েছেন তিনি জনগণের সাথে একসাথে টিকা নেবেন। সুতরাং এই বিষয়ে এখন আর কোনো বিতর্ক করার অবকাশ নেই।”

Related Articles

Back to top button