×
ক্রিকেটখেলা

টুইটারে ট্রেন্ডিং বিরাট-অনুষ্কার ডিভোর্সের খবর, আসল সত্যিটা কি?

Advertisement

ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও তাঁর স্ত্রী অনুষ্কা শর্মার বিচ্ছেদকে কেন্দ্র করে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া। শুক্রবার রাত থেকে টুইটারে একটি হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ডিং হয়েছে। #VirushkaDivorce নামে এই হ্যাশট্যাগটি ট্রেন্ডিং হতেই বিরাট আর অনুষ্কার ডিভোর্স নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেট দুনিয়ায়। কিন্তু ঘটনাচক্রে দেখা যায়, এই হ্যাশট্যাগটি আসলে একটি পুরানো পোস্ট থেকে নেওয়া। যে পোস্টটি বিরাট অনুষ্কার বিয়ের আগের একটি পোস্ট। সেখানে বিরাট আর অনুষ্কার বিচ্ছেদের কথা বলা হয়। সেই পোস্টটি ব্যবহার করেই টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়ে যায় #VirushkaDivorce.

Advertisement

কিন্তু বাস্তবে এই ঘটনার কোনো ভিত্তি নেই। সুখেই দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন বিরাট, অনুষ্কা। আসলে সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুরজার অনুষ্কা শর্মা প্রযোজিত ওয়েব সিরিজ পাতাললোক নিয়ে এক মন্তব্য করেন। তিনি পাতাললোককে দেশবিরোধী বলে তোপ দাগেন। ওই নেতা মন্তব্য করেন, “বিরাট কোহলি দেশভক্ত। ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে বিরাট কোহলির উচিত অনুষ্কা শর্মার সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ করা।”

ওই নেতার এই মন্তব্যের পরেই টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়ে যায় #VirushkaDivorce হ্যাশট্যাগটি। বিয়ের আগে তাদের দুজনের বিচ্ছেদের একটি খবর ছড়িয়ে পড়ে, এই হ্যাশট্যাগটি সেই সময়ের। শোনা গিয়েছিল, সেই সময় শাহরুখ খান নিজে বিরাট এবং অনুষ্কার সাথে কথা বলে তাদের ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে দিয়েছিলেন। ঘটনাটি ২০১৬ সালের, যেটা এখন ভাইরাল হয়েছে। বিরাট অনুষ্কার দাম্পত্য জীবনে কোনো সমস্যাই নেই। লকডাউনের মাঝে দিব্যি আছেন দুজনে। হ্যাশট্যাগটি ভাইরাল হলেও দুজনের তরফ থেকেই কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। নিজেদের জগতেই তারা খুশি আছেন।

Advertisement

Related Articles

Back to top button