×
টলিউডবিনোদন

আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বুম্বাদা! পাত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

নব্বইয়ের দশকের জল্পনাকে সত্যি করে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন প্রসেনজিৎ ঋতুপর্ণা

Advertisement

আজ ভ্যালেন্টাইন্স ডে অর্থাৎ প্রেমের দিবস। জায়গায় জায়গায় এই দিনটি উপলক্ষে নানান ধরনের সেলিব্রেশন চলছে। টলিউড থেকে শুরু করে বলিউড সমস্ত জায়গাতেই তারকার নিজেদের প্রেমের নিবেদন করেছেন অনেক জায়গায়। কিন্তু, তার মধ্যেই নেট মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রকাশ করেই রীতিমতো সাড়া ফেলে দিলেন টলিউডের এভারগ্রীন সুপারস্টার বুম্বাদা অর্থাৎ প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি প্রকাশ্যে জানালেন, তিনি আরো একবার বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন। শুধু এখানেই চমক নয়, চমক রয়েছে পাত্রীর নামেও। তিনি যাকে বিয়ে করতে চলেছেন তিনি হলেন স্বয়ং অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

Advertisement

তাদের দুজনের বিয়ের কার্ড প্রকাশ করে বুম্বাদা নেট মাধ্যমে লিখলেন, “সকলের নিমন্ত্রণ রইল। সকলের উপস্থিতি একান্ত কাম্য।” কিন্তু কারা রয়েছেন ঋতুপর্ণা এবং প্রসেনজিতের বিবাহের পিছনে? কেন করা হচ্ছে এই শুভ পরিণয়? সেই নিয়েই রহস্য উন্মোচন। অতি সম্প্রতি একটি ছোট্ট ভিডিও পোস্ট করে নেট পাড়ায় অনুরাগীদের মধ্যে রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। ডিজিটাল নিমন্ত্রণপত্রে তিনি লিখলেন, “প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা।”

তার সাথেই দর্শকদের আশীর্বাদ কামনা করে প্রসেনজিৎ এর বক্তব্য, “বিগত তিন দশকের বেশি সময় ধরে একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার পর আমরা নতুনভাবে আপনাদের সামনে আসতে চলেছি। গুরুজনদের আশীর্বাদ এবং সকলের ভালোবাসা নিয়ে আমরা আগামী পথ চলতে চাই।” কিন্তু, প্রসেনজিৎ আর ঋতুপর্ণা কি আদতেই বিবাহ করছেন? নাকি এর পিছনে রয়েছে ডিরেক্টরের অবদান? রহস্যটাকে অবশ্য খুব একটা বেশি দিন রহস্য হিসেবে রাখতে চাননি তিনি। নিজেই খোলসা করে জানিয়ে দিয়েছেন বিয়ের পাকা দেখা থেকে শুরু করে সমস্ত দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন সম্রাট শর্মা এবং তার হাট্টিমাটিম টিম।

Advertisement

অন্যদিকে বিয়ের ঘটকালি দায়িত্বে থাকছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের বোন পল্লবী চট্টোপাধ্যায়। এতক্ষণে হয়তো বুঝে গিয়েছেন, এটা কোন ভাবেই কোন আসল বিবাহ নয়। আগে হ্যাঁ, বুম্বাদার নতুন সিনেমায় দীর্ঘ বেশ কিছু বছর পর এবার স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা যাবে বুম্বাদা এবং ঋতুপর্ণাকে। নব্বইয়ের দশকের সেই কালজয়ী জুটিকে আবারো সিনেমার পর্দায় দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন সকলে। ইতিমধ্যেই তারা একসাথে ৪৮টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, যেগুলি ছিল রীতিমতো সুপারহিট। অন্যদিকে, দীর্ঘ ১৫ বছর পরে তারা আবার প্রাক্তন ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন। প্রাক্তন এর পর তাদের দুজনকে আর সেভাবে একসাথে না দেখা গেলেও, এই অসম্ভবকে আবারো সম্ভব করে দেখাতে চলেছেন পরিচালক সম্রাট শর্মা। এখন অপেক্ষা শুধুমাত্র এই ছবির মুক্তির তারিখ ঘোষণার।

Related Articles

Back to top button