নিউজপলিটিক্স

ইউটিউব ভ্লগার হবেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র, ইনস্টাগ্রামে ব্লু টিক পেয়েই করলেন ঘোষণা

মাত্র ৪ মাস আগে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলেই ব্লু টিক পেয়ে গেছেন মদন মিত্র

×
Advertisement

‘সোশ্যালি সাউন্ড’ এই শব্দবন্ধটি ব্যবহার করলে যে তৃণমূল নেতার কথা প্রথমেই মাথায় আসে তিনি হলেন জনপ্রিয় কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক তথা প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী মদন মিত্র। এর আগে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ‘কালারফুল লিডার’ তকমা পেয়েছিলেন তিনি। এবার জনপ্রিয়তার জেরে সোশ্যাল মিডিয়া সাইট ইনস্টাগ্রাম থেকে ভেরিফাইড ট্যাগ পেলেন তিনি। সহজ কথায় বলতে গেলে মদন মিত্রের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে এবার রইবে ব্লু টিক অন্যান্য সেলিব্রেটিদের মত। মাত্র ৪ মাস আগে ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট খুলে জনপ্রিয়তার শীর্ষে তিনি। আপনি শুনলে অবাক হবেন যে এত কম সময়ের মধ্যে তৃণমূল নেতার ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে ফ্যান ফলোয়ার সংখ্যা ১ লাখ ১১ হাজারেরও বেশি।

Advertisement

ফেসবুক লাইভ দুনিয়াতে বেশ পরিচিত মুখ মদন মিত্র। যেকোনো সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লাইভে এসে বক্তব্য রাখেন তিনি। অবশ্য এই নিয়ে অনেক বিতর্কেই জড়িয়েছেন তিনি। তবে বরাবর নিজের খেয়াল খুশিতে চলতে পছন্দ করেন তিনি। ফেসবুক লাইভে এলে মুহূর্তের মধ্যে হাজার হাজার মানুষ মদন মিত্রের সাথে কথাবার্তায় যোগদান করেন। এছাড়া এক একটি লাইভ ভিডিওতে লাখ লাখ লাইক থাকে। পাশাপাশি যেখানেই যান তিনি সেখানেই বেশ পরিপাটি করে সেজে ফটোশুট করতে ভোলেননা তিনি। আর মদন মিত্রের এমন সোশ্যালি সাউন্ড মনোভাব আকৃষ্ট করে যুবসমাজকে। তাই খুব সহজেই ইনস্টাগ্রামে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি।

তবে ব্লু-টিক পাওয়ার পর নিজের জনপ্রিয়তাকে কি করে সাধারণ মানুষের কাজে লাগানো যায় সেই নিয়ে চিন্তা করেছেন মদন মিত্র। জানা গিয়েছে এই বিষয়ে তিনি এক জনপ্রিয় ইউটিউবার এর সাথে শলা পরামর্শ করেছেন। হয়তো অদূর ভবিষ্যতে মদন মিত্রকে ইউটিউবে ভ্লগ বানাতে দেখা যাবে। এই প্রসঙ্গে তিনি নিজেই বলেছেন, ‘‘বহু বছর ধরে রাজনীতি করছি, আমার রাজনৈতিক জীবনে বহু ওঠানামা যেমন রয়েছে, তেমনি বহু গল্পও রয়েছে। সেই সব গল্প দিয়েই আমি ভ্লগগুলি তৈরি করব ভাবছি। তবে এখনও এ বিষয়ে বলার মত কোনও পদক্ষেপ করিনি। আমি পদক্ষেপ করলে আমার অনুরাগীরা তা আমার সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যকাউন্ট মারফত অবশ্যই জানতে পারবেন।’’

Advertisement

Related Articles

Back to top button