×
আন্তর্জাতিকনিউজ

চীনের থেকে অন্য দেশে হেডকোয়ার্টার সরাতে চাইছে ‘টিক টক’

টিকটক অ্যাপটি চিনে পাওয়া না গেলেও চিনা সংস্থার এই সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপটি বিভিন্ন দেশ সহ ভারতে বেশ জনপ্রিয়। এরফলে শুধুমাত্র ভারতেই এই অ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০ কোটি।

Advertisement

ভারতীয় ও চিনা সেনাবাহিনীর সংঘর্ষের পর ভারতে ৫৯ টি চাইনিজ অ্যাপকে ব্যান করে ভারত সরকার। যার মধ্যে অন্যতম হল টিকটক। আর এই টিকটক ভারতে ব্যান হয়ে যাওয়ার পর থেকেই সংস্থাটি প্রায় ৪৫,০০০ কোটি টাকা লোকসানের মুখে পড়তে চলেছে বলে খবর সংস্থাটির সূত্রে। টিকটক অ্যাপটি চিনে পাওয়া না গেলেও চিনা সংস্থার এই সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপটি বিভিন্ন দেশ সহ ভারতে বেশ জনপ্রিয়। এরফলে শুধুমাত্র ভারতেই এই অ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০ কোটি।

Advertisement

স্বাভাবিকভাবেই ভারত থেকে টিকটক ব্যান হওয়ার কারনে অার্থিক লোকসানের মুখে সংস্থা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও এই অ্যাপ ব্যন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়। আর এইসব কারনের ফলে এবার চিন থেকে দূরত্ব চাইছে টিকটক। রয়টার্সের তরফে পাওয়া খবর অনুযায়ী, ভারতে চিনা অ্যাপ ব্যান হওয়ার পর থেকেই বেজিং-য়ের থেকে নিজেকে দূরে সরাতে চাইছে টিকটক সংস্থা। আর তাই হেডকোয়ার্টার বদলানোর ব্যাপারে ইউকে-এর সঙ্গে আলোচনা করছে এই সংস্থা। ‘বাইটড্যান্স’ নামক একটি চিনা সংস্থার নিয়ন্ত্রণাধীনে রয়েছে টিকটক।

‘বাইটড্যান্স’ সংস্থা চাইছে টিকটকের হেডকোয়ার্টার হোক লন্ডন। তবে স্পষ্ট ভাবে কিছুই জানান হয়নি ওই সংস্থার তরফে। এদিকে ক্যালোফোর্নিয়াতে টিকটক লোক নিয়োগ শুরু করেছে। বিভিন্ন দেশের তরফে চিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে টিকটক অ্যাপের মাধ্যমে অন্যান্য দেশের প্রচুর তথ্য চুরি করছে চিন। যা মোটেই নিরাপদ নয়। আর এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে ওয়াশিংটন। একদিকে বিশ্ব জুড়ে করোনার প্রকোপে চিনের উপর ক্ষোভ ছিল অনেক দেশের। এবার তথ্য চুরির অভিযোগ উঠল ফের চিনের বিরুদ্ধে। যা চিনের পক্ষে একেবারে শিরে সংক্রান্তি।

Advertisement

Related Articles

Back to top button