নিউজরাজ্য

যাত্রী ঠাসা ট্রেনকে ভয়াবহ অ্যাক্সিডেন্টের হাত থেকে বাঁচালো এই একরত্তি খুদে, কুর্নিশ নেটজনতার

পূর্ব রেলের বিদ্যাধরপুর স্টেশনের এই কাণ্ড দেখে সকলেই তাজ্জব বনে গিয়েছেন

×
Advertisement

ছোটবেলা থেকেই আমাদের সকলকে শেখানো হয়, বিদ্যের থেকে সব সময় বুদ্ধি বড়। যদি আপনার মাথায় বুদ্ধি থাকে তাহলে ছোট বয়সও আপনি অনেক বড় কিছু করে ফেলতে পারেন। এরকমই কিছু একটা হল এবারে পশ্চিমবঙ্গে। ঘটনাটাকে শুধুমাত্র যে গল্প বলা যাবে সেরকম কিন্তু নয়। বরং এটাকে গল্প হলেও সত্যি বললে বেশি মানানসই হবে। সত্যিই এটা একটা গল্পের মতই ঘটনা। একটা শিশু খেলতে খেলতেই হঠাৎ করে বাঁচিয়ে দিলো একটা গোটা ট্রেন কে।

Advertisement

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বিদ্যাধরপুর রেলস্টেশনে। সেখানে মাত্র সাত বছরের এক শিশুর উপস্থিত বুদ্ধিমত্তায় এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করার দক্ষতায় অত্যন্ত বড়োসড়ো একটি দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়ে গেল আপ ক্যানিং লোকাল। সাত বছরের এই শিশুটির নাম দীপ নস্কর এবং সে থাকে পূর্বরেলের বিদ্যাধরপুর স্টেশন সংলগ্ন মুকুন্দপুর এলাকায়।

গতকাল হঠাৎ করে খেলতে খেলতে সেই ছেলেটি দেখতে পায় রেল লাইনের একটা অংশ ভাঙ্গা। তখনই সেই ছেলেটি বুঝতে পারে কিছু একটা গোলমাল হয়েছে। এরকম ভাঙা থাকার তো কথা নয়? তখন তৎক্ষণাৎ দৌড়ে গিয়ে তার মাকে সেই জায়গায় ডেকে আনে দ্বীপ। তার মা এসে বুঝতে পারেন রেললাইনে ফাটল রয়েছে, এবং সেখান দিয়ে যদি ট্রেন যায় তাহলে বড়সড় দুর্ঘটনা অবশ্যম্ভাবী। কিন্তু ততক্ষণে ট্রেন আসার আওয়াজ হয়ে গিয়েছে। এখন গিয়ে স্টেশনে বলেও কোন লাভ নেই।

Advertisement

তাই অগত্যা মা এবং ছেলে একটি লাল কাপড় জোগাড় করে রেল লাইনের উপরে দাঁড়িয়ে পড়ল। দূর থেকে মা এবং ছেলের এই ঘটনা দেখে রীতিমতো অবাক হয়ে গেলেন চালক এবং সরকারি চালক। তারা তৎক্ষণাৎ ট্রেন থামানোর সিদ্ধান্ত নিলেন। ট্রেন থেকে নেমে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গিয়েই জানা গেল রেললাইনে ফাটল রয়েছে। এবং এই ফাটলের সম্মুখীন হলেই ট্রেন একেবারে বেলাইন হয়ে যেত। ফলে যেকোন মুহূর্তে ভয়াবহ একটি দুর্ঘটনা করতে পারত ক্যানিং লোকালটির সাথে।

ঘটনাটি দেখামাত্রই পূর্ব রেলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে খবর দেওয়া হল। তারা তৎক্ষণাৎ এসে রেল লাইন মেরামতের কাজ করলেন। তারপরে আবারো শুরু হলো সেই লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল। মা এবং তার ছেলের এই কাজে অত্যন্ত খুশি হয়েছেন রেলের সকলেই।পাশাপাশি আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছেন রেলযাত্রীরা। খবরটি নেট মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই হয়ে গিয়েছে রীতিমতো ভাইরাল। দ্বীপের এই অভাবনীয় কাজের জন্য তাকে কুর্নিশ জানিয়েছে নেট জনতা।

Related Articles

Back to top button