নিউজপলিটিক্সরাজ্য

PAC : জন্মাষ্টমী পূজোয় বিধানসভায় স্পিকারকে এড়ালেন শুভেন্দু, পাল্টা সৌজন্য বোঝালেন স্পিকার

স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শুভেন্দু অধিকারীর মধ্যে পাবলিক একাউন্টস কমিটি নিয়ে যে সমস্যা চলছে তার রেশ এবারে গড়ালো বিধানসভায় আয়োজিত জন্মাষ্টমী পূজা পর্যন্ত



পাবলিক একাউন্ট কমিটির বিতরকের কারণ এবারে বিধানসভার জন্মাষ্টমী পুজোতেও সেই একই সমস্যা আবারও শুরু হলো। শুক্রবার বিধানসভার কর্মীদের আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে স্পিকারকে বয়কট করলো বিরোধী দল বিজেপি। স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চ ছাড়ার বেশ কিছুক্ষণ পরে সেখানে হাজির হলেন সুভেন্দু অধিকারি এবং অন্যান্য বিজেপি বিধায়কেরা। জানা গেল পাবলিক একাউন্টস কমিটি বিতরকের কারনেই তারা স্পিকারকে বয়কট করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন।

অন্যদিকে, শুভেন্দুকে পালটা সৌজন্যে মনে করিয়ে দিয়েছেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।তিনি বলেছেন, ‘বিধানসভার ঐতিহ্য সবার জানা উচিত। বিধানসভা সবার জন্য। আগেও বিরোধীরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন। আমি চাইব উনার শুভবুদ্ধির উদয় হোক।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রত্যেক বছরের মতো এ বছরও বিধানসভায় জন্মাষ্টমী পূজার আয়োজন হয়েছিল। চলতি বছরে ৫৯ তম বছরে পড়েছিল এই জন্মাষ্টমী পূজা। এই জন্মাষ্টমী পুজোতে সকল শাসক এবং বিরোধী সমস্ত বিধায়ককে বিধানসভায় ডাকা হয়েছিল। সাধারণত এই পুজোতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকেন বিধানসভার স্পিকার। এক্ষেত্রে নিজের সময়মতো উপস্থিত হয়েছিলেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, দুপুর তিনটে নাগাদ অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার সময় স্পিকার এবং অন্যান্য তৃণমূল বিধায়করা উপস্থিত থাকলেও উপস্থিত ছিলেন না বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং বিজেপি বিধায়করা। স্পিকার মঞ্চ ছাড়ার আধ ঘণ্টার বেশি সময় পরে বিধানসভায় প্রবেশ করেন শুভেন্দু।

বিধানসভায় প্রবেশ করে শুভেন্দু অধিকারী সরাসরি আয়োজকদের সঙ্গে কথা বলেন। তারপরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘অনুষ্ঠানে কোন বিভাজন নেই। কিন্তু শাসকদল পিএসিটা ছাড়ুক। তাহলে সমস্ত সমস্যা মিটে যাবে।’

Related Articles

Back to top button