নিউজ

১৫ বছরের ছেলে শরীরে করেছিল অবাঞ্ছিত স্পর্শ, উচিত শিক্ষা দেন সুস্মিতা সেন

সুস্মিতা সেন বললেন মুম্বাইতে একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার সময় একটি ১৫ বছরের ছেলে তার গায়ে অবাঞ্ছিত স্পর্শ করেছিল

×
Advertisement

নারীদের সুরক্ষা নিয়ে সব সময় কথা বলতে দেখা যায় অভিনেত্রী সুস্মিতা সেনকে। মুম্বাইয়ে নারী সুরক্ষা নিয়ে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে তিনি চিপ গেস্ট হিসেবে বক্তৃতা রাখলেন। এবং আলোচনার মূল বিষয় ছিল ভারতীয় নারীদের সুরক্ষা এবং তাদের নিরাপত্তা এবং আত্মরক্ষা। এই অনুষ্ঠানে তিনি তার নিজের জীবনের একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করে উপস্থিত জনতাকে হতচকিত করে দিলেন।

Advertisement

সুস্মিতা জানিয়েছেন, মুম্বাইয়ে একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যখন তিনি প্রবেশ করতে এসেছিলেন তখন নিজের শরীরে একটি অবাঞ্ছিত হাতের স্পর্শ অনুভব করেন সুস্মিতা সেন। তখন তিনি ঘুরে দেখলেন সেখানে অনেক ভিড় রয়েছে। এই ভিড়ের মাঝখানেও তিনি আসল দোষী কে খুজে বের করলেন। যখন তিনি খুঁজে বের করলেন সেই ছেলেটিকে তখন দেখলেন তার বয়স মাত্র ১৫ কি ১৬।

সবার সামনে যদি কিছু বলেন তাহলে, ওই ছেলেটির পুরো ক্যারিয়ার নষ্ট হয়ে যেত। এই জন্য তিনি ওই ছেলেটিকে একটি কোনায় নিয়ে গেলেন। সেখানে তিনি ওই ছেলেটিকে তার কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চাইতে বলেন। ছেলেটি প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে বেগতিক দেখে নিজের ভুল স্বীকার করে। আসলে অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন তাকে একটা সুযোগ দিতে চেয়েছিলেন। সবার সামনে হয়তো এরকম কথা বললে ছেলেটির বাকি ভবিষ্যৎ টা নষ্ট হয়ে যেত।

Advertisement

তাই সবকিছু বুঝে অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন তাকে কোনায় নিয়ে গিয়ে আলাদাভাবে বোঝানোর চেষ্টা করলেন। এই ঘটনার উল্লেখ করে অভিনেত্রী বললেন, অনেক বাড়ির লোকেরা তাদের ছেলেদেরকে শেখান না কিভাবে মেয়েদের সাথে আচরণ করতে হয়। অনেক পুরুষ মনে করেন, নারীরা প্রতিবাদ করতে জানেনা। কিন্তু প্রত্যেক নারীর উচিত আগে গলা না তুলে, দোষীকে আসল সহবত শেখানো। কারণ অনেক সময়, খুব কম বয়সী ছেলেদের মধ্যেও এরকম আচরণ লক্ষ্য করা যায়। তাদেরকে যদি ঠিক জিনিসটা বোঝানো যায় তাহলে তারা ভবিষ্যতে ভাল মানুষ হবে না। এই কারণেই অভিনেত্রী ছেলেটিকে নিজের ভুল শুধরে নেওয়ার একটা সুযোগ দিয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button