×
নিউজরাজ্য

এবছর কালীপূজায় বাজি পোড়াবেন না, বড় ক্ষতি হতে পারে কোভিড আক্রান্তদের, আর্জি মমতার

Advertisement

কালি পুজোতে বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে ইতিমধ্যেই মামলা করা হয়ে গিয়েছে। এবার সেই মামলার পক্ষ নিয়েই রাজ্যবাসীকে বাজি না পোড়ানোর আর্জি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে কালীপূজায় বাজি পোড়ানোর বন্ধ রাখার আর্জি রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সংক্রমণ কমাতে দুর্গাপুজোর পর এবারে কালি পুজোতেও শোভাযাত্রা বের করা যাবে না। এমনটাই নির্দেশ রাজ্য সরকারের।

Advertisement

এদিন মুখ্যমন্ত্রী, মুখ্য সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, রাজ্য পুলিশের ডিজি, এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনার বৈঠক করেন নবান্নের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে। বৈঠকে কালি পুজোতে বাজি পোড়ানো নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এবং তারপরেই প্রেস বিবৃতিতে সকলকে এই আর্জি জানান আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্য সচিব বলেন,” আদালত নির্দেশিত নিষিদ্ধ বাজি তো বটেই, কোন বাজি এবছর কেউ ব্যবহার করবেন না। করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের শরীরে এই বাজির খুব খারাপ প্রভাব পড়ে। বাজির ধোয়া তাদের জন্য খুব খারাপ। এই কারণে উৎসব যতটা সম্ভব শান্তভাবে পালন করুন।”

এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন, কালি পুজোতে মাস্ক ব্যবহার করতেই হবে। শোভাযাত্রা করা তো যাবেই না, বরং যতটা সম্ভব করোনা সতর্কতা মেনে চলতে হবে। দুর্গা পুজোতে অনেক মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে ছিলেন, কিন্তু তা সত্বেও কোভিড সংক্রমণ সেরকমভাবে হয়নি। সুস্থতা অনেক বেড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে, সকলের উচিত রাজ্য সরকারকে সাহায্য করে তাদের সাথে সহযোগিতা করা।

Advertisement

আতশবাজির ধোয়া করনা আক্রান্তদের পক্ষে অত্যন্ত মারাত্মক। এই নিয়ে অনেক চিকিৎসকরা একজোট হয়ে সতর্কবার্তা জারি করেছেন। এছাড়াও সতর্কবার্তার কথা উল্লেখ করে সোমবার হাইকোর্টে একটি মামলা জারি করা হয়েছে। এছাড়াও শহর এবং রাজ্যে কোথাও যাতে বাজি না বিক্রি হয় সেদিকে কড়া নজর রাখবে পুলিশ এবং প্রশাসনিক।

Related Articles

Back to top button