নিউজরাজ্য

সরকারি কর্মচারীদের পুজোর উপহার মমতা সরকারের, কর্মীরা মাস শেষের আগেই পাবেন বেতন

পুজো উপলক্ষে ২৮-২৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা বেতন পেয়ে যাবেন

×
Advertisement

সেপ্টেম্বর মাস শেষ হলেই পরের মাসের শুরু থেকেই আনন্দে ভাসবে প্রত্যেক বাঙালি। কারণ তো একটাই। বাঙালি সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গোৎসব শুরু অক্টোবর মাসের একদম শুরুর দিকেই। তারপর গোটা মাসে রয়েছে কালীপুজোও। বলা যেতে পারে, গোটা অক্টোবর মাসটাই বাঙ্গালীদের কাটবে পুজো পার্বণে। আগামী মাসের শুরুতেই দুর্গাপূজা হওয়ার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে রাজ্যের সমস্ত সরকারি দপ্তরগুলি। অন্যদিকে আবার মহাষষ্ঠী শনিবার এবং মহাসপ্তমী রবিবার হওয়ার জন্য মহাষষ্ঠীর পরদিন থেকেই বন্ধ থাকবে ব্যাংকের কাজও। ফলে তখন আর্থিক লেনদেনের ব্যাপক সমস্যা হবে। তবে পূজার মুখে হাতে টাকা না থাকলে কি হয়! সব কথা বিচার করেই রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়েছে মমতা সরকার।

Advertisement

জানা গিয়েছে, মাস শেষের আগেই এবার রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের অ্যাকাউন্টে ঢুকবে টাকা। এই মর্মে গত বুধবার রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বেশ কয়েকটি ঘোষণা করা হয়েছে। বলা হয়েছে যে, রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন, অনুদান, সান্মানিক ও পারিশ্রমিক চলতি মাসের ২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দেওয়া হবে। তার পরের মাস অর্থাৎ অক্টোবরে টাকা দেওয়া হবে ২১ তারিখ। এছাড়া রাজ্য সরকারি অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা পেনশন পাবেন ২৯ সেপ্টেম্বর। জয় বাংলা, লক্ষীর ভান্ডার ইত্যাদি প্রকল্পের টাকা ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ব্যাঙ্কে ঢুকে যাবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজ্য সরকারের এমন সিদ্ধান্তে কর্মচারীরা যে বেশ খুশি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। পুজোর সময় অ্যাকাউন্টে টাকা না থাকলে হয়তো পুজোটা মাটি হয়ে যেতে পারত। কিন্তু নিজের সরকারী কর্মচারীদের প্রতি যথেষ্ট সহানুভূতিশীল মমতা সরকার। এছাড়া জানিয়ে রাখি, লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের মহিলারা প্রতিমাসে ৫০০ টাকা করে পান। পুজোর আগে তারাও পেয়ে যাবেন তাদের হাতখরচা। এর ফলে মমতার সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে সকল মহল থেকেই সাধুবাদ জানানো হচ্ছে।

Advertisement

Related Articles

Back to top button