টলিউডবিনোদন

Srabanti: মলদ্বীপে অভিনেত্রীর হট অবতার দেখে চোখ কপালে নেটিজেনদের! ফের ট্রোলড হলেন শ্রাবন্তী



কলকাতা অভিনেত্রীর প্রিয় শহর হলেও করোনার জন্য অনেকদিন কোথাও দূরে ঘুরে আসতে পারেননি। আবার এই শহরে বেশ কয়েকমাস ধরে নানান বিতর্কের মধ্যেও পড়তে হয়েছে এই অভিনেত্রীকে। তাই প্রিয় মানুষদের সঙ্গে শহর ছাঁড়লেন এই অভিনেত্রী। সমস্ত কোলাহল আর কাজ থেকে ছুটি নিয়ে নীল জলের দেশে হারিয়ে গেলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।

ইতিমধ্যে মালদ্বীপ পৌছে নিজের ইন্সটাগ্রাম হ্যান্ডেলে একগুচ্ছ ছুটি কাটানোর ছবি দিলেন শ্রাবন্তী। আপাতত এখন শ্রাবন্তী ও তাঁর ছেলে আর ছেলের বান্ধবীর ঠিকানা মালদ্বীপের বিলাসবহুল রিসর্ট। অভিনেত্রীর শেয়ার করা প্রথম ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সাদা লম্বা ঝুলের শার্ট পরে চোখে কালো চশমায় ঢাকা। নীল জলের পাশে হাসিমুখে আর হাতে পানীয়ের গ্লাস নিয়ে দাঁড়িয়ে তিনি। এই ছবিতে অভিনেত্রীর উন্মুক্ত পা দৃশ্যমান। এই ছবি দিয়ে অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘হাসি এমন এক জিনিস, যা ক্ষণিকেই ছুটির আমেজ দিতে পারে’।

শুধু এই ছবি দিয়ে অভিনেত্রী থেমে থাকেননি। এবার অভিনেত্রী নিজের ইন্সটাগ্রাম পোস্টে সেক্সি ছবি শেয়ার করলেন। অভিনেত্রী যে বিলাসবহুল রিসর্টে থাকছেন সেই সাগরের উপর তৈরি সুইমিং পুলের জলে দাঁড়িয়ে রয়েছেন অভিনেত্রী। অভিনেত্রীদ ছবির পিছনে দিগন্ত বিস্তৃত নীল আকাশ, আর স্বচ্ছ নীল সাগরের জল। এই ছবিতেও শ্রাবন্তীর হাতে রয়েছে পানীয়র গ্লাস, পরনে সাদা লম্বা ঝুলের শার্ট। সেই শার্টের ভিতরে কালো রঙা বিকিনিও স্পষ্ট দ্বিতীয় ছবিতে। আর এবারেও নায়িকা চোখ ঢেকেছেন কালো চশমায়। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘হাসি এমন এক জিনিস, যা ক্ষণিকেই ছুটির আমেজ দিতে পারে’।

বিদেশের মাটিতে শ্রাবন্তীর ছুটি কাটানোর ছবি দেখে উচ্ছ্বসিত তাঁর ফ্যানরা। তাঁর পোস্টের মন্তব্য বাক্সে অনুরাগীরা নানান কমেন্টে ভরিয়ে দিয়েছেন। তবে অন্যান নায়িকাদের মতো এখনো নিজের কোনো বিকিনি লুকের ছবি পোস্ট করেননি। তবে নিজের ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে বিকিনিতেও ছবি পোস্ট করেছেন। তবে মুখের ক্লোজ-আপ নায়িকার বোল্ড অবতার ধরা পড়েছে।

তাই এখন অল্পেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে অনুরাগীদের। ছবির উপর লিখেছেন, ‘ট্যান অফ এ চেঞ্জ’। মলদ্বীপ থেকে এদিন একের পর এক ছবি শ্রাবন্তী পোস্ট করেছেন তা দেখে তো হা অনুরাগীরা। তবে কিছু নীতি পুলিশ কটুক্তি করতেও ভোলেননি। কেউ লিখেছেন, ‘দিদি, জামাটা কিন্তু অনেকটা কাটা’। তো কেউ লিখেছেন, ‘তোমার প্যান্ট কই?’। তবে এই ট্রোলারদের উত্তর ও দিয়েছেন শ্রাবন্তীর অনুগামীরা। অনুগামীরা লিখেছেন, মলদ্বীপে ঘুরতে গিয়ে সকলে স্নান পোশাই পরবে নিশ্চয় ঘাঘরা পরে ঘুরতে বেড়াবে না। 

Related Articles

Back to top button