টলিউডবিনোদন

বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শরীরে করা হল প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ

Advertisement

কিছুদিন আগেই করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার রাতে হঠাৎ অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে আই সি ইউ-তে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর ,তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কম রয়েছে। প্রতিদিন তাঁকে প্রায় দশ লিটার করে অক্সিজেন দিতে হচ্ছে। শনিবার সৌমিত্রবাবুর সিটি স্ক্যান করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু তাঁর বুকে কিছু মেলেনি।তবে শারীরিক ভাবে অস্থির হয়ে রয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। চিকিৎসকদরা বলেছেন,মেডিক্যাল সায়েন্স অনুযায়ী এই অবস্থাকে বলা হয়,’করোনা এনকেফ্যালাইটিস’। এই শারীরিক পরিস্থিতিতে রোগী মাঝে মাঝে খুব উত্তেজিত হয়ে ওঠেন।

শনিবার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের একটি টিম অভিনেতার শরীরে প্লাজমা থেরাপির পরামর্শ দেন। তাঁদের নির্দেশ অনুযায়ী গতকাল অভিনেতার শরীরে কনভালসেন্ট প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়। প্লাজমা থেরাপি তাঁর শরীরে কাজ করা শুরু করেছে কিনা এবং তা কতটা প্রভাবশালী তা জানার জন্য 48 ঘন্টা অপেক্ষা করতে  হবে।

চিকিৎসকদের মতে,দ্রুত সৌমিত্রবাবুর মস্তিষ্কের এম.আর.আই করা প্রয়োজন। কিন্তু তাঁর এই মুহূর্তের শারীরিক পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে চিকিৎসকরা ঝুঁকি নিতে চাইছেন না।অভিনেতার সঙ্গে এই মুহূর্তে সর্বক্ষণ একজন ডাক্তার উপস্থিত থাকছেন। অভিনেতাকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। সৌমিত্রবাবুর একদম খাবার ইচ্ছে না থাকলেও তাঁর ঘুম ঠিকঠাক হচ্ছে।

পয়লা অক্টোবর থেকেই অসুস্থ ছিলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা।জ্বর,সর্দির মত কোভিড উপসর্গ তাঁর শরীরে দেখা দিয়েছিল।কোভিড টেস্টের পর তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসায় 6 তারিখ সকাল 11 টা নাগাদ তাঁকে মিন্টো পার্কের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এমনিতেও 2006 সাল থেকে সৌমিত্রবাবু সিওপিডির সমস্যায় আক্রান্ত।কিন্তু বৃদ্ধদের কোভিড সংক্রমণ ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার কারণে সৌমিত্রবাবুকে নিয়ে যথেষ্ট উদ্বেগ রয়েছে চিকিৎসক মহলে।

Tags

Related Articles

Back to top button