টলিউডবিনোদন

চোখ মেলে তাকাচ্ছেন, ডাকলে সাড়াও দিচ্ছেন, শারীরিক অবস্থার উন্নতি সৌমিত্রবাবুর

Advertisement

ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা। বেলভিউ নার্সিং হোম সূত্রে জানা গেছে যে,রাতে ভালো ঘুম হচ্ছে তাঁর। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা এই মুহূর্তে স্বাভাবিক রয়েছে। তবে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে কিছুক্ষণের জন্য বাইপ‍্যাপ সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে। অভিনেতার শরীরে সোডিয়াম ও পটাশিয়াম লেভেল ক্রমশ স্বাভাবিক হচ্ছে। কিন্তু সংক্রমণের কারণে গতকাল অবধি সৌমিত্রবাবু কিছুটা আচ্ছন্ন ছিলেন এবং কিছুটা অস্থির ছিলেন। তবে আজ তিনি অনেকটা সুস্থ আছেন। এই মুহূর্তে তাঁর মিউজিক থেরাপি চলছে। সৌমিত্রবাবুকে তাঁর প্রিয় রবীন্দ্রসংগীত শোনানো হচ্ছে। কখনো কখনো তাঁর অভিনীত ফিল্মের গানও চালানো হচ্ছে। সৌমিত্রবাবু চোখ মেলে তাকাচ্ছেন,ডাকলে সাড়াও দিচ্ছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন,সৌমিত্রবাবু অল্প কথাও বলছেন। তাঁর মূত্রথলিতে সংক্রমণ কমছে। সৌমিত্রবাবুকে অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে। বুধবার তাঁর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে তাঁর শরীরে ফুসফুস ও মস্তিষ্কে পুরানো ক্যান্সারের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। যা চিকিৎসকদের উদ্বেগ বজায় রেখেছে। 24 ঘন্টা একজন চিকিৎসক রয়েছেন সৌমিত্রবাবুকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখার জন্য।

গত 6 অক্টোবর অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় করোনা সংক্রামিত হয়ে বেলভিউ নার্সিংহোমে ভর্তি হন। 2006 থেকে সৌমিত্রবাবু সিওপিডির পেশেন্ট। সুতরাং করোনা সংক্রমণ হওয়ার কারণে সৌমিত্রবাবুর শ্বাসকষ্ট আরো বেড়ে যায়। অক্সিজেনের মাত্রা শরীরে কমতে থাকে ও কার্বন-ডাই-অক্সাইডের মাত্রা বাড়তে থাকে। সিটি স্ক্যান করে তাঁর বুকে কিছু মেলেনি। কিন্তু এম .আর.আই. ও সিএসএফ রিপোর্টে জানা যায় তাঁর মস্তিষ্ক ও ফুসফুসে পুরানো ক্যান্সারের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। এমনকি মূত্রথলিতে সংক্রমণ ধরা পড়ে। বেলভিউ কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সৌমিত্রবাবুর জন্য 16 জন চিকিৎসকদের বিশেষ একটি টিম গঠন করা হয়। এছাড়া বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী সৌমিত্রবাবুর শরীরে দুই বার প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ করা হয়। কিন্তু সৌমিত্রবাবুর অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তাঁকে বাইপ‍্যাপ ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। তবে তাঁর হার্টরেট অনিয়মিত হওয়ার কারণে ইনভেসিভ ভেন্টিলেশনের কথা ভাবা হয়। তাঁর শরীরে প্রচন্ড অস্থিরতা দেখা দেয়। সৌমিত্রবাবু তন্দ্রাচ্ছন্ন হয়ে যান। তবে বুধবার থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। ক্রমশ তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলেও চিকিৎসকরা তাঁকে এখনও সঙ্কটমুক্ত ঘোষণা করেননি।

সৌমিত্রবাবুর কন্যা পৌলমী সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন যে তাঁর বাবা আগের থেকে ভালো আছেন। তিনি শুভানুধ্যায়ীদের ধন্যবাদ জানান। কিন্তু কিছুক্ষণ পরে পৌলমী সোশ্যাল মিডিয়ায় আরেকটি পোস্ট করেন যেখানে তিনি তাঁর অনৈতিক ভাবে সৌমিত্রবাবুর ভেন্টিলেশনের ছবি এবং ICU-এর ছবি ছড়িয়ে পড়ার বিরোধিতা করেন। অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী পৌলমীর এই পোস্টটি নিজের সোশ্যাল মিডিয়া ওয়ালে শেয়ার করেন। তবে এই মুহূর্তে সমস্ত সমালোচনার ভিড় কাটিয়ে সৌমিত্রবাবুর পরিবার তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে কিছুটা স্বস্তিতে রয়েছেন।

Tags

Related Articles

Back to top button