Today Trending Newsদেশনিউজপলিটিক্স

মোদির মন্ত্রিসভায় নতুন মুখ হতে চলেছেন বাংলার দুজন

সূত্রের খবর, নিশীথ প্রামানিক এবং শান্তনু ঠাকুর মন্ত্রিত্ব পেতে চলেছেন এবারে মোদির মন্ত্রিসভায়



জল্পনা বেশ অনেকদিন ধরে ছিল, আর এবারে সে জন্য কিছুটা হলেও সত্যি হতে চলেছে। কিছুদিন আগে থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা রদবদল হতে চলেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়েছিল। আশা ছিল এবারে বাংলা থেকে কোন একজন হয়তো পূর্ণমন্ত্রিত্ব পাবেন। বেশ কয়েকজনের নাম ঘোরাফেরা করছিল বটে। এরই মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন নিশীথ প্রামাণিক, লকেট চট্টোপাধ্যায়, শান্তনু ঠাকুর এবং দিলীপ ঘোষ। এবারে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে কিছু নির্দেশ মিলেছে যেখান থেকে জানা যাচ্ছে মন্ত্রিসভায় বাংলা থেকে দুইজন সাংসদ মন্ত্রিত্ব পেতে চলেছেন। এদের মধ্যে আছেন কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামানিক এবং বনগাঁর সাংসদ শান্তনু ঠাকুর।

জানিয়ে রাখি নিশীথ প্রামানিক বর্তমানে দিল্লিতে অবস্থান করছেন। অন্যদিকে, জরুরি তলব পাওয়া মাত্রই সরাসরি পশ্চিমবঙ্গ থেকে দিল্লির দিকে রওনা দিয়েছেন শান্তনু ঠাকুর। এছাড়াও লকেট চট্টোপাধ্যায় কে ডেকে পাঠানো হয়েছে দিল্লিতে। সূত্রের খবর তিনি হয়তো রাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পেতে পারেন। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডার সঙ্গে তারা বৈঠক করতে চলেছেন আজকে এই বিষয়ে।

এবার শুধুমাত্র এই দুজন কেন? জানা যাচ্ছে, ১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে বেশ ভালো ফল করেছিল ভারতীয় জনতা পার্টি আর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন নিশীথ প্রামানিক। কোচবিহারে তিনি নিজেই জয়লাভ করেছিলেন তাই উত্তরবঙ্গে এই সাংসদের আলাদা একটা গুরুত্ব রয়েছে। তার পাশাপাশি নিশীথ প্রামানিক অমিত শাহ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একজন বেশ পছন্দের পাত্র। তার পাশাপাশি, বনগাঁ অঞ্চলে মতুয়া অধ্যুষিত এলাকা থেকে লোকসভা নির্বাচনে বেশ ভালো ফল করেছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। এখানে, বিজেপিকে বেশ ভালো মাত্রায় আসন জিতিয়ে দিতে সাহায্য করেছিলেন মতুয়া মহলের সদস্য শান্তনু ঠাকুর। তাই তার প্রতি ভারতীয় জনতা পার্টির একটা আলাদা সম্মান রয়েছে।

তবে শুধুমাত্র এরা দুজন নয়, হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়কে এবারে রাষ্ট্রমন্ত্রী দায়িত্ব দিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গত লোকসভা নির্বাচনে হুগলিতে বেশ ভালো ফল করেছিল ভারতীয় জনতা পার্টি এবং তার দায়িত্বে ছিলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। এই কারণেই লকেটের হাতে এবারে আসতে চলেছে মন্ত্রিত্ব। এছাড়াও মধ্যপ্রদেশ থেকে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, আসাম থেকে সর্বানন্দ সোনোয়াল, মহারাষ্ট্র থেকে নারায়ন রানে, গুজরাট থেকে সুশীল মোদি, উত্তর প্রদেশ থেকে অনুপ্রিয়া প্যাটেল, বিহার থেকে পশুপতি পারোস, মহারাষ্ট্র থেকে প্রীতম মুন্ডে এবং উত্তর প্রদেশ থেকে ভূপেন্দ্র যাদব মোদির পরবর্তী মন্ত্রিসভায় মন্ত্রিত্ব পেতে চলেছেন বলে সূত্রের খবর। তার পাশাপাশি যারা বয়স্ক মন্ত্রী রয়েছেন তাদের দায়িত্বভার কমানো হচ্ছে। তাদেরকে বিভিন্ন রাজ্যের রাজ্যপাল হিসেবে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা চিন্তা করছে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর আগামী বছর উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন। সবথেকে বড় রাজ্য ভারতের, তাই ভোল্টেজ সবথেকে বেশি। তাই এবারে উত্তরপ্রদেশকে পাখির চোখ করে মন্ত্রিসভা গঠনের দিকে মন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Related Articles

Back to top button