দেশপলিটিক্স

ফের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ

নয়াদিল্লি: ফের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন প্রবীণ কযগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ। কংগ্রেসের নেতৃত্বে বদল চেয়ে যে নেতারা চিঠি দিয়েছিলেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন গুলাম নবি আজাদ৷ ফের একবার কংগ্রেসের নেতৃত্বে বদলের দাবিতে সরব হলেন প্রবীণ এই কংগ্রেস নেতা৷ এবার আরও চাঁচাছোলো ভাষায় তিনি বললেন, দলের মধ্যে নির্বাচন না করলে আগামী ৫০ বছর বিরোধী আসনেই বসতে হবে কংগ্রেসকে৷

দলের সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে লেখা চিঠিতে ২৩ জন সিনিয়র কংগ্রেস নেতারা দাবি তুলেছিলেন, দলে স্থায়ী এবং সক্রিয় নেতৃত্বের প্রয়োজন৷ এই চিঠিকে কেন্দ্র করে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে ঝড় ওঠে৷ চিঠি লেখার জন্য গুলাম নবি আজাদ সহ বাকি নেতাদের পাল্টা তোপের মুখে পড়তে হয়৷ পরিস্থিতি এমন পর্যায় পৌঁছয় যে ইস্তফার ইচ্ছে প্রকাশ করেন কংগ্রেসের এই রাজ্যসভার সাংসদ৷ অন্তবর্তী সভানেত্রী হিসেবে দায়িত্বে থেকে যান সনিয়াই৷ পরে অবশ্য তাঁর ক্ষোভ প্রশমনে সনিয়া, রাহুল গান্ধিরা তাঁর সঙ্গে ব্যক্তিগত ভাবে কথা বলেন৷

যদিও নেতৃত্বে বদলের দাবি থেকে সরছেন না আজাদ৷ তাঁর মতে, অবিলম্বে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি সহ দলের গুরুত্বপূর্ণ পদগুলির জন্য নির্বাচন করা প্রয়োজন৷ তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দশক ধরে আমাদের দলে নির্বাচিত নেতৃত্ব নেই৷ হয়তো আরও ১০ থেকে ১৫ বছর আগেই বিষয়টি নিয়ে আমাদের সরব হওয়া উচিত ছিল৷ আর এখন আমরা একের পর এক নির্বাচনে পরাজিত হচ্ছি৷ ঘুরে দাঁড়াতে গেলে আমাদের অবিলম্বে দলের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে৷’

সংবাদসংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেছেন, ‘আমার দল যদি আগামী ৫০ বছর বিরোধী আসনেই বসতে চায়, তাহলে অবশ্য দলের মধ্যে কোনও নির্বাচনের প্রয়োজন নেই৷’

Tags

Related Articles

Back to top button