নিউজরাজ্য

পুজোর আগেই চালু হতে চলেছে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন, চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

মেট্রোরেলের হাত ধরে ধীরে ধীরে বদল পাচ্ছে কলকাতার অন্যতম বড় রেলওয়ে স্টেশন এবং মেট্রো স্টেশন শিয়ালদহ।



একেবারে নতুন রূপে সেজে উঠতে শুরু করেছে শিয়ালদহ স্টেশন। মেট্রোরেলের হাত ধরে এবারে নতুন লুকে ফিরছে কলকাতার ঐতিহ্যবাহী শিয়ালদহ স্টেশন। অন্যদিকে, আগামী চার মাসের মধ্যে খুলে যাওয়ার পথে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন। তার জন্য এবার ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মেট্রো স্টেশন শিয়ালদহ চালু করে দেবার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। মেট্রো রেলওয়ে দাবি, প্রতিদিন প্রায় লক্ষাধিক মানুষ এই মেট্রো রেলওয়ে ব্যবহার করে যাতায়াত করবেন। তাই তাদের জন্য একেবারে নতুন লুকে সেজে উঠতে চলেছে কলকাতার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী স্টেশন।

যাত্রী সুবিধায় এক্ষেত্রে সবথেকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। মেট্রো রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন এবং এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশনের মাঝখানে থাকবে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন। এছাড়া মধ্য কলকাতার সবথেকে জমজমাট জায়গার মধ্যে একটি হলো শিয়ালদহ। এই কারণে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন সবথেকে বেশি ভিড় থাকতে পারে বলে মনে করছেন মেট্রো কর্তৃপক্ষ। যাত্রীদের সুবিধা দেওয়ার জন্য মাটির প্রায় সাড়ে ১৬ মিটার নিচে মেট্রো রেলওয়ে লাইন তৈরি করা হচ্ছে। রেলস্টেশনের একেবারে গা ঘেঁষে উঠছে মেট্রো স্টেশন। এই কারণে যাত্রী সুরক্ষার উপর সবথেকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে মেট্রো।

মেট্রো কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ” শিয়ালদহ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি স্টেশন হতে চলেছে কারণ শহরতলীর বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ আসেন এই স্টেশনে। শহরের বিভিন্ন জায়গায় যাওয়ার জন্য এই মেট্রো স্টেশন ব্যবহার করবেন অনেকে। তার পাশাপাশি এখানে কলকাতা সব থেকে বড় রেলওয়ে স্টেশনের মধ্যে একটি রয়েছে। আমরা সব জিনিসটা বুঝে তারপরে কাজ করেছি এবং যাত্রীদের সুরক্ষার উপর সবথেকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। যাতে যাত্রীরা প্রশস্ত জায়গা দিয়ে চলাফেরা করতে পারে তাই তাদের সুবিধার জন্য বেশ চওড়া করা হয়েছে এই রেলওয়ে স্টেশন। তার পাশাপাশি যাত্রীদের সুবিধার জন্য এই মেট্রো স্টেশনে ৯টি সিঁড়ি রাখা হয়েছে। শিয়ালদহ দক্ষিণ স্টেশনের সামনে দিয়ে একটি প্রশস্ত জায়গা রয়েছে যেখান দিয়ে সহজে যাতায়াত করা যাবে। এছাড়াও স্টেশনে থাকছে সর্বমোট ১৮টি চলমান সিঁড়ি অর্থাৎ এস্কেলেটর। ”

এছাড়া মেট্রো রেলওয়ে জানিয়েছে, এই নতুন মেট্রো স্টেশনের সর্বমোট সাতাশটি টিকিট কাউন্টার রাখা আছে। যাদের শারীরিক ভাবে কোন সমস্যা থাকবে বা যারা প্রতিবন্ধী তাদের জন্য আলাদাভাবে কিছু টিকিট কাউন্টার দেখা হয়েছে, এগুলি একটু নিচু। এছাড়া তাদের যাতায়াতের জন্য লিফট এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই স্টেশন সাজানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে ফুলবাগান থেকে টানেল ধরে শিয়ালদহ পর্যন্ত ট্রায়াল’ মেট্রো চালানো হবে। পরীক্ষামূলক মেট্রো চলাচল সফল হলে মোটামুটি পুজোর সময় থেকে চালু করে দেওয়া হবে এই মেট্রো রেলওয়ে স্টেশন।

Related Articles

Back to top button