×
খেলাক্রিকেট

ওয়ার্নের কথা মনে করে কেঁদে ফেললেন পন্টিং,শেয়ার করলেন তোদের বন্ধুত্বের গল্প

Advertisement

দুর্দান্ত বোলার শেন ওয়ার্নের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে এক সাক্ষাৎকারে ভেঙে পড়েন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক রিকি পন্টিং। ওয়ার্ন 52 বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। থাইল্যান্ডের সামুইতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। পন্টিং ওয়ার্নের খুব ভালো বন্ধু।

Advertisement

রিকি পন্টিংয়ের জীবনের এক কাছের মানুষ ছিলেন ওয়ার্ন। এক সাক্ষাৎকারে পন্টিং ওয়ার্ন সম্পর্কে বলেছেন, ‘বিশ্বের অন্যান্য মানুষের মতো আমিও এই খবর শুনে হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম। আমি ঘুমোতে গিয়েছিলাম এই ভেবে যে আমার মেয়েদের নেটবলের জন্য নিয়ে যেতে হবে উঠে, কিন্তু যখন আমি জেগে উঠি তখন সবকিছু বদলে গিয়েছিল। এই খবর হজম করতে আমার বেশ কয়েক ঘণ্টা লেগেছে। ওয়ার্ন আমার জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিল। আমি তার চেয়ে ভালো বোলারের সাথে কখনো খেলিনি। তাকে সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় হিসাবে গণ্য করা হবে। ওয়ার্ন স্পিন বোলিং পরিবর্তন করে বিপ্লব এনেছেছিলেন।

এর আগে শনিবার ওয়ার্নের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টও করেছিলেন পন্টিং। তাতে তিনি লিখেছেন -‘ওয়ার্ন আমাকে পান্টার বলে ডাকতেন। কথায় বর্ণনা করা কঠিন আমার মনের ভাব তার মৃত্যুর খবরে। আমি 15 বছর বয়সে প্রথমবার তার সাথে দেখা করি। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে আমরা দলে ছিলাম এক সঙ্গে। সব উত্থান-পতন একসাথে দেখেছি। তিনি এমন একজন ছিলেন যার ওপর আপনি সর্বদা নির্ভর করতে পারবেন। আমি গর্বিত যে আমি সর্বকালের সেরা বোলারের সাথে খেলেছিলাম।’

Advertisement

৫২ বছর বয়সে মারা যাওয়া ওয়ার্ন, ক্রিকেট গ্রাউন্ডে তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্যে সর্বদা সকলের মনে থাকবে। ওয়ার্ন বিশ্বের প্রথম বোলার যিনি টেস্ট ক্রিকেটে 600 এবং 700 উইকেটের মাইলস্টন ছুঁয়েছেন। প্রথম আইপিএল শিরোপা জিতেছেন তিনি অধিনায়ক হিসেবে। ওয়ার্ন 15 বছরের ক্যারিয়ারে মোট 145টি টেস্ট খেলে 708 উইকেট নিয়েছিলেন। তিনি সর্বোচ্চ 99 টেস্ট স্কোর সহ নিম্ন-অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন। তার প্রয়াণে ক্রিকেট জগতের এক নক্ষত্র পতন ঘটেছে। সকল জগতবাসি এই খবরে খুব দুঃখিত, আর যদি প্রশ্নের কাছের বন্ধুর হয় তাহলে ভাবাই যায় না কেমন হবে তার মনের অবস্থা নিজের ভাত্রীপ্রটিম বন্ধুর মৃত্যুর খবরে, তাই কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন রিকি পন্টিং।

Related Articles

Back to top button