টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Devlina Kumar: লাল শাড়ি, মাথা ভরা সিঁদুর, গৌরবকে সঙ্গী করে মাকে বরণ করে সিঁদূর খেললেন দেবলীনা

তিন বছর খুল্লামখুল্লাম প্রেম করে গত বছর ডিসেম্বর মাসে বিয়ে করেন গৌরব চট্টোপাধ্যায় এবং দেবলীনা কুমার। বিয়ের পর দুজন দুজনেই নিজেদের অভিনয়ের কাজে বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তবে এদের ভালোবাসার কোনো ভাঁটা পড়েনি। ব্যস্ত শিডিউলের মধ্যে দুজনে রোজ নিয়ম করে সকালবেলা সাইকেল চালানো, গৌরবের জন্য মাঝেমধ্যেই নানান খাবার রান্না করেন দেবলীনা। এমনভাবে ভালোই চলছে তাদের সুখের সংসার। নিজেদের সংসার করার নানান মুহূর্ত শেয়ার ও করেন দুজনে।

এবছরের মতো পুজো শেষ হয়ে গিয়েছে। মাকে এবার বিদায় জানানোর পালা। তাই গোটা বাংলা জুড়ে বিষাদের সুর। দশমীর সকাল থেক বিসর্জনের প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে শহরের ঘাটে ঘাটে। সিঁদুর খেলাও শুরু হয়ে গিয়েছে। বিয়ের পরে এই প্রথম দুর্গাপুজো ছিল অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারের। পুজোয় কোনো কাজ নয় এই দিন চারদিন চুটিয়ে মজা করেছেন। আর পুজোয় মাকে বিদায় জানালেনও হাসি মুখেই। তবে এবারের পুজো ছিল অভিনেত্রীর কাছে একটু বেশি স্পেশ্যাল৷ কারণ গৌরবের সাথে আগে অনেক পুজো কাটালেও এটা তাঁদের বিয়ের পর প্রথম পুজো।

এদিন স্বামী গৌরবকে সাথে নিয়েই পৌঁছে গেলেন ত্রিধারার পুজো মন্ডপে। নিজের হাতে মা দুর্গাকে বরণ করলেন। বিয়ের পর সকল মহিলাদের সিঁদুর খেললেনও সকলের সঙ্গে। আর সঙ্গে ছবি তুললেন গৌরবকে নিয়ে। এই দিন দুজনেই জুটি বেঁধে লাল রঙে সেজেছিলেন। দেবলীনা লাল শাড়ি আর গৌরব লাল পাঞ্জাবিতে উপস্থিত হন। অভিনেত্রী মাথায় খোঁপা বেঁধে তাতে বড় জুঁই ফুলের মালা গেঁথেছিলেন। আর সিঁথিতে চওড়া করে সিঁদুর, কপালে লাল টিপ আর সোনার গয়নায় সেজেছিলেন। একদম সাবেকি সাজে লেন্সবন্দী হলেন।

বিজয়া-লুকে সকলের কাছে প্রশংসা পেয়েছেন উত্তম কুমারের নাতি আর নাত বৌ। গৌরবের পাশাপাশি এদিন বাবা দেবাশীষ কুমার ও মায়ের সঙ্গেও ছবি শেয়ার করেছেন দেবলীনা। বরাবরই ত্রিধারা-র পুজোয় ওতোপ্রতোভাবে জড়িত থাকতেন দেবলীনা। বিয়ের পর সেই রুটিনে কোনও ভাটা পড়েনি। এদিন মায়েএ ভাসানের ভিডিও নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী।

Related Articles

Back to top button