বলিউডবিনোদন

চিকিৎসা করাতে বিদেশ পাড়ি রজনীকান্তের! চিন্তার ভাঁজ অনুরাগীদের



২০২১ সালে একের পর এক খারাপ খবর। ভালো নেই দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্ত। চিকিৎসার কারণে মধ্যরাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিলেন দক্ষিণী সুপারস্টার। শুক্রবার রাতেজ চেন্নাই বিমানবন্দরে পাপারাৎজিদের ক্যামেরাতে লেন্সবন্দী হন তিনি। সঙ্গে ছিলেন অভিনেতার স্ত্রী লতাও। রজনীকান্তের ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে, প্রথমে দোহাঁ যাবেন তারপর সেখান থেকে উড়ে যাবেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

প্রিয় অভিনেতার হঠাৎ এই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেওয়ার ঘটনায় চিন্তিত তাঁর অনুরাগীরা। যদিও জানা গিয়েছে, তেমন কিছু হয়নি অভিনেতার।রেগুলার চেকআপের জন্যই পাড়ি দিয়েছেন অভিনেতা। বছর কয়েক আগেই অভিনেতার কিডনি প্রতিস্থাপন হয়েছিল। সে কারণেই চেকআপের জন্য বার বার বিদেশ পাড়ি দেন। তাঁর জন্যই এই বিদেশ পাড়ি। আপাতত দিন কয়েক সেখানেই থাকবেন তাঁরা। হবে নানান পরীক্ষানিরীক্ষাও। অনুরাগীরা অভিনেতার এই বিদেশ যাত্রা দেখে তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ফেরার কথাও বলেছেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে পরিচালক সিরুথি শিবার আন্নাথের শুটিং শুরু করেছিলেন মিস্টার থালাইভা। যদিও কোভিডের বাড়বাড়ন্তের জন্য সব সিনেমার শ্যুটিং আপাতত বন্ধ। এমনকি এই ছবির শ্যুটিং পুরোপুরি বন্ধ।রজনীকান্ত ছাড়াও ওই ছবিতে রয়েছেন নয়নতারা, মীনা, প্রকাশ রাজ, খুশবু সহ নানান কলাকুশলীরা। এই বছরের ৪ নভেম্বর সিনেমা হলে মুক্তি পাওয়ার কথা ছবিটির। তবে করোনার জন্য এই ছবি মুক্তি পাবে কিনা তা এখনো জানা যায়নি।

দেশ জুড়ে যখন কোভিড পরিস্থিতি ভয়াবহ চারিদিকে মানুষের আর্তনাদ। এই খারাপ সময়ে মাস খানেক আগে মানুষের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসেছিলেন সুপারস্টার রজনীকান্ত। তামিলনাড়ুর মূখ্যমন্ত্রী এমকে স্তালিনের হাতে তুলে দিইয়েছিলেন ৫০ লক্ষ টাকা। চেন্নাইয়ের সেন্ট জর্জ ফোর্টে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে কোভিড-১৯ রিলিফ ফান্ডে এই টাকার অনুদান রাখেন রজনীকান্ত। রজনীকান্ত বলেছিলেন, ‘তিনি জনগণকে মহামারী নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকার কর্তৃক অনুমোদিত কোভিড বিধিনিষেধ কঠোরভাবে অনুসরণ করার জন্য আবেদন করেছেন।’

Related Articles

Back to top button