খেলাক্রিকেট

IPL ফাইনালে আরও একধাপ এগোল বিরাট বাহিনী

রজত পাটিদার এবং দীনেশ কার্তিকের লম্বা ইনিংসের উপর নির্ভর করে ২০ ওভার ব্যাটিং শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর।

×
Advertisement

গতকাল বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১৪ রানের ব্যবধানে লখনউ সুপার জায়েন্টসের বিরুদ্ধে জয়লাভ করে চলতি আইপিএলে কোয়াটার ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করল রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর! গতকাল গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন লখনউ সুপার জায়েন্টসের অধিনায়ক কে এল রাহুল। ইনিংসের শুরুতেই গোল্ডেন ডাক পেয়ে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ২৫ এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল মাত্র ৯ রান করে সাজঘরে ফিরলে পরাজয় কার্যত নিশ্চিত হয়ে যায় ব্যাঙ্গালোরের জন্য।

Advertisement

তবে আনক্যাপ্ট ক্রিকেটার রজত পাটিদারের বিধ্বংসী ইনিংসের উপর নির্ভর করে লড়াই করার জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর। রজত পাটিদার ৫৪ বলে ১২ চার এবং ৭ ছক্কার মাধ্যমে অপরাজিত ১১২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে ব্যাট হাতে তার সঙ্গ দেন দীনেশ কার্তিক। ফিনিশার হিসেবে আরও একবার নিজেকে মেলে ধরেন দীনেশ কার্তিক। মাত্র ২৩ বলে অপরাজিত ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। মূলত, রজত পাটিদার এবং দীনেশ কার্তিকের লম্বা ইনিংসের উপর নির্ভর করে ২০ ওভার ব্যাটিং শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর।

২০৮ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে নেমে শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৩ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় লখনউ সুপার জায়েন্টস। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭৯ রানের ইনিংস খেলেন অধিনায়ক কে এল রাহুল। তাছাড়া দীপক হুডা ব্যক্তিগত ৪৫ রানের ইনিংস খেলেন। মূলত হার্সেল প্যাটেলের কৃপণ বোলিংয়ের জন্য জয়ের লক্ষ্যমাত্রা পৌঁছে যায় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট দখল করেন জোশ হ্যাজেলউড। তাছাড়া নির্ধারিত ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ২৫ রানের বিনিময়ে এক উইকেট দখল করেন হার্সেল প্যাটেল। লখনউ সুপার জায়েন্টসের বিপক্ষে জয় নিশ্চিত করতেই আমেদাবাদে রাজস্থানের দ্বিতীয় কোয়ালিফাই ম্যাচ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর।

Advertisement

Related Articles

Back to top button