বাংলা সিরিয়ালবিনোদন

ছেলে কোলে বাড়ি ফিরলেন রাজা-মধুবনী, অনুরাগীদের জানালেন পয়লা বৈশাখের শুভেচ্ছা

কিছুদিন আগেই অভিনেতা রাজা গোস্বামী (Raja Goswami)-র সঙ্গে কয়েকটি ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করেছেন তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী অভিনেত্রী মধুবনী গোস্বামী (Madhubani Goswami)। ছবিগুলি শেয়ার করে ক্যাপশন দিয়ে মধুবনী লিখেছেন, এগুলি তাঁদের আনন্দের ছবি। ছবিগুলিতে মধুবনীর পরনে রয়েছে মভ পিঙ্ক রঙের লঙ ম্যাটারনিটি ড্রেস। মধুবনীর শরীরে ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে আগামীর চিহ্ন অর্থাৎ বেবি বাম্প। মাতৃত্বের সময়ে কোনো ডায়েট মানা সম্ভব নয়। তাই এতদিন যেসব খাবার থেকে দূরে থেকেছেন মধুবনী, এখন সেই পিৎজা, বিরিয়ানি সবকিছুই খেতে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। এর মধ্যেই চকলেটেও কামড় বসিয়েছেন মধুবনী। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছিল।

সম্প্রতি মধুবনীর শাশুড়ি আয়োজন করেছিলেন মধুবনীর সাত মাসের সাধের। মধুবনী নিজের শাশুড়িকে ‘মামণি’ বলে ডাকেন। নিজের সাধের ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করেছেন মধুবনী। ছবিগুলিতে সোনালি নেটের শাড়ি পরে জমিয়ে সাধ খেতে দেখা যাচ্ছে মধুবনীকে। তার আগে মধুবনী ও তাঁর ‘মামণি’ পালন করেছেন কিছু মাঙ্গলিক রীতি। মধুবনীর সাধের পাতে এদিন কিছুই বাদ ছিল না। পাঁচ রকম ভাজা, বিভিন্ন ধরনের ব্যঞ্জন, মাছ-মাংস সবকিছুই ছিল হবু মায়ের জন্য। কিন্তু মধুবনী সাধের ছবিগুলি শেয়ার করে লিখেছেন, তাঁর সবচেয়ে প্রিয় হল ভাজাভুজি, সেগুলি আরও বেশি পরিমাণে পাতে দেওয়া হলে তাঁর আরও বেশি ভালো লাগত।

শাশুড়ির হাতে সাধ খাওয়ার পরের দিন সাধের আয়োজন করেছিলেন মধুবনীর মা। মধুবনীর সাধে রাজা উপস্থিত থাকতে না পারলেও মা ও মেয়ে পাশাপাশি বসে খেয়েছেন দুপুরের খাবার। মায়ের দেওয়া সাধের দিন মধুবনী পরেছিলেন লাল রঙের বেনারসী শাড়ি। সেই শাড়ি পরিহিত ছবি শেয়ার করে মধুবনী বলেছেন, তিনি পূর্ণতার আনন্দ অনুভব করছেন। প্রকৃতপক্ষে নিজের মায়ের হাতের রান্না খাওয়ার সময় অন্যান্য মেয়েদের মতো মা হওয়ার কর্তব্য অনুধাবন করেছেন। এমনকি মধুবনী এখন হয়তো কিছুটা নার্ভাস। ফলে তিনি তাঁর আরাধ্য ভগবান শ্রীকৃষ্ণকেও স্মরণ করেছেন।

গত বছর 5 ই নভেম্বর মধুবনী ইন্সটাগ্রামে তাঁর প্রেগনেন্সির খবর জানিয়েছেন অনুরাগীদের। এছাড়া মধুবনী নিজের বেবি বাম্পের ফটো পোস্ট করেছিলেন। মধুবনীর মাতৃত্বের খবর শুনে নেটিজেনরা তাঁকে অনেক শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানিয়েছেন। রাজা গোস্বামী (Raja Goswami) ও মধুবনী সকলের কাছে তাঁদের আগত সন্তানের জন্য আশীর্বাদ চেয়েছিলেন।
অবশেষে অপেক্ষার অবসান হল। 10 ই এপ্রিল সকালে মধুবনীর কোল আলো করে জন্ম নিল রাজা ও মধুবনীর পুত্রসন্তান। রাজা সোশ্যাল মিডিয়ায় সুসংবাদের সঙ্গেই শেয়ার করেছেন মধুবনী ও তাঁদের পুত্রসন্তানের ছবি। তবে মধুবনীর কোলের কাছে শুয়ে থাকা পুত্রসন্তানের মুখ আড়ালেই ছিল। পুত্রসন্তানের জন্মসংবাদ শেয়ার করে রাজা ভগবানকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। নেটিজেনরাও নতুন বাবা-মাকে জানিয়েছেন অনেক শুভেচ্ছা।

এর মধ্যেই মধুবনী তাঁদের পুত্রসন্তানের সঙ্গে আরও একটি ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, তাঁদের পুত্রসন্তানের নাম হল কেশব(keshav)। গর্ভবতী অবস্থায় একাধিকবার মধুবনীকে বালগোপালের মূর্তি হাতে ছবি তুলতে দেখা গেছে। এমনকি গর্ভাবস্থার শুরুর দিকে তিনি ভগবান শ্রীকৃষ্ণের ছবি দিয়ে একটি পোস্ট শেয়ার করে লিখেছিলেন, তাঁর কোলে গোপাল রূপে আসতে। এই কারণে শ্রীকৃষ্ণের অপর একটি নাম কেশব-এর নামানুসারে রাজা ও মধুবনীর পুত্রসন্তানের নাম হল কেশব। তবে মধুবনীর শেয়ার করা ছবিতে কেশবের মুখ ঢাকা ছিল একটি ‘হার্ট’ ইমোজি দিয়ে।

পয়লা বৈশাখের প্রাক্কালে নবজাতক কেশবকে কোলে নিয়ে রাজার সঙ্গে হসপিটাল থেকে বাড়ি ফিরে এলেন মধুবনী। তাঁর পরনে ছিল লাল রঙের ম্যাটারনিটি ড্রেস ও মুখে মাস্ক। রাজা পরেছিলেন অফ হোয়াইট টি-শার্ট ও জিনস। কেশবকে তোয়ালের ভিতর সুন্দর করে জড়িয়ে নিয়েছিলেন মধুবনী। রাজা-মধুবনীর ঘরের দেওয়ালে আঁকা ময়ুরপালকের সামনে দাঁড়িয়ে কেশবকে কোলে নিয়ে ছবি তুললেন রাজা-মধুবনী। ছবিটি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করে রাজা অনুরাগীদের জানিয়েছেন বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা। মধুবনী, রাজা ও কেশবকেও সবাই নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। রাজা-মধুবনী ও কেশবের এই ছবিটি ভাইরাল হয়েছে।

স্টার জলসার জনপ্রিয় বাংলা ডেইলি সোপ ‘ভালোবাসা ডট কম’-এর সেট থেকে অভিনেতা রাজা গোস্বামী ও তাঁর স্ত্রী অভিনেত্রী মধুবনীর বন্ধুত্ব শুরু হলেও একসময় তা পরিণত হয় প্রেমে। ‘ভালোবাসা ডট কম’-এর অনস্ক্রিন নায়ক-নায়িকা ওম-তোড়া ওরফে রাজা ও মধুবনী কয়েক বছর আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁদের প্রেমের 11 বছর পূর্ণ হওয়ার প্রসঙ্গে রাজা জানিয়েছেন, স‍্যাট করে প্রেমে পড়ে যাওয়ার পর গাড়ি বদলেছে, বাড়ি বদলেছে, সরকার বদলেছে। কিন্তু তাঁদের ভালোবাসা আগের মতোই আছে। রাজা বলেছেন, লাল মারুতি গাড়িটা অনেক ছোট ছিল কিন্তু তাতে জায়গার অভাব হয়নি কখনও। বরং তাঁরা দুজনে আরো কাছাকাছি এসেছেন।

এই মুহূর্তে রাজা অভিনয় করছেন স্টার জলসার জনপ্রিয় বাংলা ডেইলি সোপ ‘খড়কুটো’য়। মধুবনীর হাতে বহুদিন ধরেই অভিনয়ের কাজ নেই। সম্প্রতি তিনি উত্তর কলকাতার আহিরিটোলায় ‘মধুবনী’জ বিউটি স্পা অ্যান্ড সাঁলো’ নামে নিজের একটি বিউটি পার্লার খুলেছেন। প্রায়ই তাঁকে ইন্সটাগ্রামে নিজের বিউটি পার্লারের প্রচার করতে দেখা যায়।

Related Articles

Back to top button