নিউজরাজ্য

বাসিন্দাদের সচেতন করতে মাস্ক বিতরণ, পূর্ব বর্ধমানের ভাতার থানার পুলিশ

বর্ধমান : শুধু করোনা আক্রান্ত নয়, তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বেড়েই চলেছে মৃত্যুর হার। রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত একদিনে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ২৩,৩৯০। করোনা আবহে এখন নিত্যসঙ্গী মাস্ক এবং স্যানিটাইজার। নিজের সুরক্ষা বজায় রাখতে এখন ভগবানের পাশাপাশি আরো একটি ভরসা হলো স্যানিটাইজার।

সকাল বিকেল যখন তখন যতবার নিজের হাত আর শরীর স্যানিটাইজ করা সম্ভব হবে ততোই ভালো। কিন্তু এর মাঝেও এরকম আছেন যারা করোনা আতঙ্ককে তোয়াক্কা না করে বিনা মাস্কে এদিক ওদিক বিনা দ্বিধায় ঘুড়ে বেড়াচ্ছেন। এই সকল বাসিন্দাদের সচেতন করতে এদিন মাস্ক বিতরণ করলেন পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার থানার পুলিশ।

এদিন বাসিন্দাদের সচেতন করতে প্রায় এক হাজার মাস্ক বিতরণ করেন ভাতার থানার পুলিশের কর্মী অফিসাররা। এমনকি পাশাপাশি পথ চলতি বাসিন্দাদেরও সচেতন করা হয়। রাজ্যের অন্যান্য স্থানের তুলনায় এইখানে একদিনে প্রায় চল্লিশ জন বাসিন্দা করোনাণ আক্রান্ত হলেও সেই সংক্রমণ খুব তাড়াতাড়িই রাশ টানা গিয়েছে। এদিনের সচেতনার আসল উদ্দেশ্য ছিলো এলাকার মানুষদের মধ্যে হারিয়ে যাওয়া সচেতনতা ফিরিয়ে আনা।

জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিক সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই জেলায় আক্রান্তদের মধ্যে বেশিরভাগই উপসর্গহীন, সে কারণেই আরো বেশি আতঙ্কিত এলাকার মানুষজন কিন্তু তবুও তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র সচেতনতা নেই। সব মিলিয়ে পুলিশের এদিনের তৎপরতা অনেক খানি সফল হয়েছে বলে মনে করছেন আম জনতা। এমনকি পুলিশের এই উদ্যোগে খুশি এলাকার বাসিন্দারা।

 

Tags

Related Articles

Back to top button