ভাইরাল & ভিডিও

লকডাউনে ‘চা কাকুর’ পর নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ‘মিষ্টি কিনতে যাচ্ছি’! দেখুন ভিডিও

×
Advertisement

করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ভারতজুড়ে একধাক্কায় সংক্রমণ হার ও মৃত্যুহার বাড়িয়ে দিয়েছে। অন্যান্য রাজ্যের মতো যথেষ্ট শোচনীয় অবস্থা বাংলার। তাই গতকাল মমতা সরকার আগামী ১৫ দিনের জন্য কার্যত লকডাউনের ঘোষণা করেছেন। এই লকডাউনে সরকারি ও বেসরকারি অফিস থেকে শুরু করে প্রায় যে কোন ধরনের গন পরিবহন ব্যবস্থা বন্ধ থাকলেও আশ্চর্যজনকভাবে মিষ্টির দোকান খোলার সময়সীমা সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা অব্দি রাখা হয়েছে। এই জায়গাতেই এসে অনেকেই প্রতিবাদের সুর তুলেছে যে বাজার খোলার সময় সীমা অত কম থাকলেও মিষ্টির দোকান খোলার সময় সময় এত বেশি দেওয়ার দরকার কি? আবার অনেকেই প্রশ্ন করেছেন যে যখন মানুষের বাড়ি থেকে বেরোনো নিষেধ তখন মিষ্টির দোকান খুলে রেখে কি হবে? তাহলে কি মিষ্টির দোকানে গেলে পুলিশ কিছু বলবে না?

Advertisement

গতকাল থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে উল্লিখিত প্রশ্ন নিয়ে তোলপাড় চলছে। অনেকেই বিষয়টি নিয়ে মিম বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া পাতায় শেয়ার করছে। তবে এর মধ্যেই একটি ভিডিও ভাইরাল তালিকায় উঠে এসেছে যা দেখে আপনি আপনার হাসি আটকে রাখতে পারবেন না। কি এমন আছে সেই ভিডিওতে? আসলে ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে এক ব্যক্তি লকডাউনের সময় রাস্তায় বেরিয়েছেন। এই কড়াকড়ি লকডাউনের মাঝে সে কেন রাস্তায় বেরিয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন করে এক কলকাতা পুলিশের অফিসার। সেই প্রশ্নের উত্তরে সে একটি কার্ডবোর্ডে লেখা দেখায় যা দেখেই হাসির উৎসার হয়েছে নেটিজেনদের মনে। কি এমন লেখা ছিল?

আসলে ঐ ব্যক্তি তার গলাতে একটি কার্ডবোর্ডের চৌকো অংশে মার্কার পেন দিয়ে লিখে রেখেছে, “মিষ্টি কিনতে যাচ্ছি!” এটি দেখেই পুলিশ কর্মীরা ওই ব্যক্তিকে ভৎসনা করে। এক পুলিশকর্মী জিজ্ঞেস করেছেন, “আপনি কি মজা করছেন?” ভিডিওটি দেখে নেটিজেনরা তাদের হাসি আটকে রাখতে পারেনি। আসলে গতকাল থেকেই এই বিষয় নিয়ে জোর চর্চা চলছিল যে তাহলে লকডাউনে মিষ্টির দোকানে যাওয়া কি কোন অপরাধ নয়? আর আজকে এমন ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় আসতে নেটিজেনরা তাতে লাইক ও কমেন্টের বন্যা বইয়ে দিয়েছে। বেশিরভাগ মানুষ এই ভিডিওতে “হাহা” রিঅ্যাক্ট দিয়েছে। পোস্ট করার কিছুক্ষণের মধ্যেই ভিডিওটি বর্তমানে ৩ হাজারের বেশি লাইক তুলে নিয়েছে।

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত কাল নবান্নে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলেন যে আগামী ৩০ মে অব্দি রাজ্যে কার্যত লকডাউন থাকবে। এইসময় সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে এবং শুধুমাত্র জরুরী পরিষেবা সাথে যুক্ত অফিস খোলা থাকবে। বাস, ট্রেন, মেট্রো, অটো, ট্যাক্সি ইত্যাদি সমস্ত গন পরিবহন মাধ্যম বন্ধ থাকবে। মিষ্টির দোকান খোলা থাকবে ১০ টা থেকে ৫ টা অব্দি। বাজার সকাল ৭ টা থেকে ১০ টা খোলা থাকবে। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরোলে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। কোন প্রয়োজনে বেরোলে ই পাস থাকা বাধ্যতামূলক।

Related Articles

Back to top button